১০:৫০ পিএম, ২৩ নভেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার | | ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

দক্ষ জনবলের অভাবে পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় ল্যাব

০৫ নভেম্বর ২০১৭, ০৯:৫৭ পিএম | নিশি


এসএনএন২৪.কমঃ দীর্ঘদিন পর অত্যাধুনিক করা হলো পরিবেশ অধিদপ্তরের চট্টগ্রাম বিভাগীয় ল্যাব।  যেখানে কেবল তেজস্ক্রিয়তা ছাড়া পরিবেশের সব ক্ষতিকর উপাদান শনাক্ত করা যাবে।  তবে দক্ষ জনবলের কারনে মেশিন থাকা সত্ত্বেও তা পূর্ণাঙ্গরুপে চালু করা যাচ্ছেনা।  বিশেষজ্ঞদের শংকা, অপারেটরের দক্ষতা না থাকলে নষ্ট হতে পারে খুবই ব্যয়বহুল যন্ত্রপাতি।  তবে দক্ষ জনবল গড়ে তুলতে প্রশিক্ষনের কথা জানান অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। 

 চট্টগ্রামে পানি, বায়ু, মাটিসহ পরিবেশ দূষন রোধে দেখভাল করে পরিবেশ অধিদপ্তর।  কিন্তু কয়েকটি ছাড়া সব উপাদানের দূষনের মাত্রা এবং কোন প্রতিষ্ঠান কি পরিমাণ দূষন করছে তা জানা যেত না ল্যাবে যন্ত্র স্বল্পতায়।  তবে সম্প্রতি আধুনিকায়ন হয়েছে ল্যাব।  এই যেমন, এটমিক এবজরসন স্পেকট্রো ফটোমিটার।  যা মাপবে পানিতে মিশে থাকা ৬৭ টি ধাতব পদার্থ।  আগে কেবল আর্সেনিক ও আয়রনের পরিমাপ করতো সংস্থাটি। 

কেবল তা নয়, রাসায়নিক ও জৈব পদার্থ শনাক্ত মেশিনসহ ৭৫ ধরনের যন্ত্র স্থাপিত হয় ল্যাবে।  সংশ্লিষ্টদের দাবি, এতে বেড়েছে ল্যাবের সক্ষমতা।  যা সহায়ক হবে দূষন রোধে।  জলবায়ু ট্রাষ্ট ফান্ডের অর্থায়নে প্রায় ১৩ কোটি টাকা ব্যয়ে আধুনিকায়ন করা হয় এ ল্যাব।  কেবল ঠিক মাত্রায় নমুনা দিলেই স্বয়ংক্রিয় ফলাফল জানাবে এসব মেশিন।  তবে দক্ষ টেকনেশিয়ানের অভাবে এখনো পূর্ণাঙ্গরুপে চালু করা যাচ্ছেনা ল্যাবটি। 

তবে অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা জানান, পরিপূর্ণ দক্ষতা অর্জনের পর পূর্ণাঙ্গরুপে চালু করা হবে এ ল্যাব।  শিক্ষার্থীদের গবেষণা এবং বন্দর দিয়ে আমদানি করা নানা পণ্য পরীক্ষনেও এই ল্যাব ব্যবহারের কথা ভাবছে কর্তৃপক্ষ। 

Abu-Dhabi


21-February

keya