৮:০২ পিএম, ২১ নভেম্বর ২০১৭, মঙ্গলবার | | ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

গণপূর্ত অধিদপ্তরে সাদার্ন শিক্ষার্থীদের ইজিপি প্রশিক্ষণ

১২ নভেম্বর ২০১৭, ১১:৫৮ এএম | মুন্না


মো. সাইদুল ইসলাম চৌধুরী : গণপূর্ত  অধিদপ্তর রক্ষনাবেক্ষণ বিভাগের উদ্যোগে আয়োজিত দিনব্যাপী  ইলেকট্রনিক গভর্মেন্ট প্রকিউরমেন্ট (ইজিপি) বিষয়ক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেছেন সাদানর্ ইউনিভার্সিটি সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ৩০ জন শিক্ষার্থী। 

সম্প্রতি গণপূর্ত অধিদপ্তরের রক্ষনাবেক্ষণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ে এ প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।  প্রশিক্ষণে শিক্ষার্থীদের ই-টেন্ডার এর বিভিন্ন ধাপ সম্পর্কে হাতে কলমে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন গণপুর্ত অধিদপ্তরের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার এম হাসান ইবনে সিরাজ ও ইঞ্জিনিয়ার রিপন চাকমা। 

সমাপনী পর্ব ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গণপূর্ত বিভাগের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার আবদুল হাই।  আরও উপস্থিত ছিলেন ছিলেন গণপূর্ত বিভাগের সাবেক অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী ও সাদানর্ ইউনিভার্সিটি সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক ইঞ্জিনিয়ার তারেক মঈনুল ইসলাম, চট্টগ্রাম গণপূর্ত জোন নির্বাহী প্রকৌশলী (স্টাফঅফিসার) আহসান উল্লাহ ও গণপূর্ত রক্ষনাবেক্ষণ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মইনুল ইসলাম। 

প্রধান অতিথির বক্তব্যে গণপুর্ত বিভাগ এর অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী আবদুল হাই বলেন, সরকারি অফিসগুলো এখন অনেক বেশি সেবামুখি, যা তথ্য প্রযুক্তির ব্যাবহারের ফলেই সম্ভব হয়েছে।  দেশে একটি স্থায়ী ও পরিকল্পিত অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রযোজন, আর এই অবকাঠামো খাতে উন্নয়নের জন্য প্রকৌশলীদের পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধি ও গবেষণার বিকল্প নেই।  কারণ অবকাঠামোগত উন্নয়ন মানেই দেশের কাঙ্খিত উন্নয়ন ও এগিয়ে চলা। 

সাদানর্ ইউনিভার্সিটি সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের শিক্ষক ইঞ্জিনিয়ার তারেক মঈনুল ইসলাম শিক্ষার্থীদের জন্য এই ধরনের দক্ষতামূলক  প্রশিক্ষণ কর্মশালা আয়োজন করায় গণপুতর্ অধিদপ্তরকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন ।  তিনি বলেন, ইজিপি সিস্টেম আমাদের টেন্ডারিংসহ যাবতীয় কাজকে স্বচ্ছতার এক অনন্য ধাপে নিয়ে গেছে।  আমরা যত বেশি এর প্রযুক্তিগত ধাপগুলো সম্পর্কে জানতে পারবো জনগণ ততবেশি এর সুফল ভোগ করতে পারবে। 

প্রকৌশলী আহসান উল্লাহ বলেন, বর্তমান সময়টা আমাদের প্রকৌশলীদের জন্য অনেক চ্যালেঞ্জিং কারণ প্রথমত কাজগুলো  প্রযুক্তির সংস্পর্শে চলে যাচ্ছে তাই সঠিক প্রকৌশল জ্ঞান কাজে লাগিয়ে যেমন কাজ করতে হবে তেমনি প্রযুক্তি সাথে ভালোভাবে অভ্যস্ত তা না থাকলে আমরা এগোতে পারবোনা।  

প্রকৌশলী মইনুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সময়ে পেশাগত কাজের দক্ষতা বাড়াতে ভবিষ্যৎ প্রকৌশলীদের ইজিপি বা এই ধরনের দক্ষতা বৃদ্ধিমুলক ট্রেনিং এর বিকল্প নেই।   কারণ সময় ও যুগের চাহিদায় এগোতে না পারলে আমরা পিছিয়ে যাবো।