৫:০৩ পিএম, ২৪ নভেম্বর ২০১৭, শুক্রবার | | ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

বাঁশখালীতে গার্মেন্টস কর্মী ধর্ষনের শিকার : আটক ২

১৪ নভেম্বর ২০১৭, ০৮:২৪ পিএম | সাদি


সৈকত আচার্য্য, বাঁশখালী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি : চট্টগ্রামের বাঁশখালী উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের পাহাড়ি এলাকায় নিয়ে গিয়ে জোরপূর্বক এক গার্মেন্টস কর্মীকে পালাক্রমে ধর্ষনের ঘটনা ঘটেছে।  এ ঘটনায় পুলিশ ২ ধর্ষনকারীকে আটক করেছে।  তাছাড়া ধর্ষনের কাজে ব্যবহৃত সিএনজি অটোটেক্সীও জব্দ করেছে পুলিশ। 

এদিকে মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ধর্ষিতাকে উদ্ধার ও ধর্ষনকারীদের আটকের বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে গুনাগরী পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ এসআই সুজন সিকদার জানান, এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে ধর্ষিতাকে উদ্ধার করা হয়েছে।  তাছাড়া ২ ধর্ষনকারীকেও আটক করা হয়েছে।  এছাড়াও ধর্ষনের কাজে ব্যবহৃত অটো টেক্সীও জব্দ করা হয়েছে।  এ ব্যাপারে নিয়মিত মামলা রুজুর প্রক্রিয়াও চলছে বলে তিনি জানান। 

তবে এ ঘটনায় সিএনজি অটোটেক্সী ড্রাইভার আটক থাকলেও তাকে এখনো পর্যন্ত গ্রেফতার দেখানো হয়নি বলে অভিযোগ ধর্ষিতার পরিবারের।  

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় অবস্থিত কোরিয়ান ইপিজেডে প্ল্যানিংয়ের কাজে কর্মরত শ্রমিক তৃষা আক্তার (১৮) প্রতিদিনের ন্যায় সোমবার রাত ৮ টার কর্মস্থল থেকে বাড়ীর উদ্দেশ্যে সিএনজি টেক্সী যোগে ফেরার পথে উপজেলার সাধনপুর ইউনিয়নের পাহাড় সংলগ্ন খ্রিস্টান অফিস এলাকায় পৌঁছলে তাকে সিএনজি টেক্সীর ড্রাইভার ও দুই যাত্রী জোর পূর্বক পাহাড়ের ভিতর নিয়ে যায়।  এ সময় তাকে জোরপূর্বক পালাক্রমে ধর্ষন করে সিএনজির ড্রাইভার সহ দুই যাত্রী। 

ধর্ষিতার আত্মচিৎকারে প্রধান সড়কে যাতায়াতকারী লোক শুনতে পেয়ে ঘটনাস্থলে যায়।  সেখানেই ধর্ষনের চিত্র দেখে তাদেরকে হাতে নাতে আটক করে পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে রাত ১০ টার দিকে তাদেরকে থানায় নিয়ে আসে।  আটককৃতরা হলেন, উপজেলার পুকুরিয়া ইউনিয়নের চাঁদপুর গ্রামের সওদাগর পাড়া এলাকার মোঃ নাছিরের পুত্র নুরুল আলম (২৫) ও  পার্শ্ববর্তী উপজেলা সাতকানিয়ার চরতি ইউনিয়নের বামন ডাঙা গ্রামের মৃত ইউনুসের পুত্র আনোয়ার হোসেন (২৭)। 

এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) শরিফুল ইসলাম বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টদের আটক করেছে।  তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা করা হবে।