১০:২০ এএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার | | ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

সাইজ্জার ট্যাক এলাকায় অভিযানে ০২ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৭

১৭ নভেম্বর ২০১৭, ০১:৩৯ পিএম | মুন্না


এসএনএন২৪.কম : র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদ্ঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।  র‌্যাবের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, ডাকাত, খুনি, বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার, মাদক উদ্ধার, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার করে সাধারণ জনগনের মনে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। 

র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী যাত্রীবাহী বাসযোগে ইয়াবা ট্যাবলেট নিয়ে কক্সবাজার হতে চট্টগ্রামের দিকে আসছে।  সংবাদের ভিত্তিতে ১৬ নভেম্বর ২০১৭ ইং তারিখ ২৩:০০ ঘটিকার সময় স্কোয়াড্রন লিডার শাফায়াত জামিল ফাহিম এর নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল চট্টগ্রাম মহানগরীর কর্ণফুলী থানাধীন সাইজ্জার ট্যাক নামক স্থানে কর্ণফুলী সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনের পূর্ব পাশে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উপর একটি বিশেষ চেকপোষ্ট স্থাপন করে গাড়ী তল­াশী করতে থাকে। 

এ সময় কক্সবাজার হতে আসা একটি দেশ ট্রাভেলস, ঢাকা যাত্রীবাহী বাস থামিয়ে তল­াশীকালে ০২ জন যাত্রীর আচরণ সন্দেহজনক মনে হলে র‌্যাব সদস্যরা ১।  মোসাঃ ময়না বিবি (৩৫), স্বামী- মোঃ সেলিম রেজা, গ্রাম- দিঘলকান্দি, পো- হলিদাগাছী, থানা- পুঠিয়া, জেলা- রাজশাহী এবং ২।  মোঃ বুলবুল আহম্মদ (২০), পিতা- মোঃ এজাজুল হক, গ্রাম- কাজির পাড়া, পো- হরিয়ান চিনির কল, থানা- পবা, জেলা- রাজশাহী’দেরকে আাটক করে। 

পরবর্তীতে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত ব্যক্তিদের কাছে থাকা নতুন কাঠের চেয়ারের সিটের নীচে বক্সের ভিতর বিশেষ কৌশলে লুকানো অবস্থায় ১৩,০০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট এবং তাদের দেহ তল­াশী করে ১২,০০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধারসহ গ্রেফতার করা হয়। 

উলে­খ্য, গ্রেফতারকৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, তারা দীর্ঘদিন যাবত পরস্পর যোগসাজোশে বিভিন্ন কৌশলে কক্সবাজার হতে ইয়াবা ট্যাবলেট ক্রয় করে রাজশাহী নিয়ে বিক্রয় করে।  উদ্ধারকৃত ইয়াবা ট্যাবলেটের আনুমানিক মূল্য ০১ কোটি ২৫ লক্ষ টাকা। 

গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত ইয়াবা সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ১৯৯০ সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইন এর ধারা মোতাবেক চট্টগ্রাম মহানগরীর কর্ণফুলী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।