৫:১০ পিএম, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শনিবার | | ১১ মুহররম ১৪৪০


বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবী : বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি

২৪ নভেম্বর ২০১৭, ০৬:৩১ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বিশিষ্ট শিল্পপতি মো. শাহজাদা আলম ও বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস গণমাধ্যমকে দেওয়া এক বিবৃতিতে শুক্রবার বিকালে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন কর্তৃক ভোক্তা পর্যায়ে বিদ্যুতের দাম গড়ে ৫% বৃদ্ধির সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। 

বিবৃতিতে তারা বলেন, বর্তমান মহাজোট সরকার ক্ষমতায় এসে ইতিপূর্বে সাতবার বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করেছে, বর্তমান বৃদ্ধি নিয়ে মোট আটবার দাম বাড়ালো।  মূল্য বৃদ্ধির ফলে এর কুপ্রভাব বাড়ি-ভাড়া থেকে শুরু করে কৃষি, সেচ ও সকল পণ্য মূল্য বৃদ্ধি পাবে।  যা জনজীবনে দুঃসহ যন্ত্রণা বয়ে আনবে। 

বিবৃতিতে শিল্পপতি মো. শাহজাদা আলম ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, রেন্টাল-কুইক রেন্টালের মাধ্যমে কতিপয় মুনাফালোভী ব্যবসায়ীর মুনাফার স্বার্থে বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির এই ঘোষণা বিইআরসির গণশুনানীকে আবারো গণতামাশা বলে প্রতীয়মান করলো। 

বিবৃতিতে তারা বলেন, ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ নেতা ও তাঁদের আত্মীয়স্বজনদের লুটপাটের আরও বেশি সুযোগ করে দিতেই বিদ্যুতের দাম বাড়ানো হয়েছে।  বিদ্যুৎ উৎপাদনের উপাদান জ্বালানি তেলের দাম আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কমে গেলেও বাংলাদেশ তা কমানো হয়নি। 

বিদ্যুতের জন্য আমদানি মূল্যে জ্বালানি সরবরাহ এবং ভর্তুকীর টাকাকে ঋণ হিসেবে দেখিয়ে সুদ ধার্য্য না করলে বিদ্যুতের দাম কোন ক্রমেই বৃদ্ধির প্রয়োজন হবে না বলে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী এবং পিডিবি’র চেয়ারম্যান বলেছিলেন।  তারপরও আমদানি মূল্যে জ্বালানি তেল সরবরাহ না করে দাম বৃদ্ধির ঘোষণা তাহলে কার স্বার্থে-দেশবাসী তা জানতে চায়। 

বিবৃতিতে মো. শাহজাদা আলম ও মোহাম্মদ ইলিয়াস বলেন, বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধিতে সবচেয়ে বিপাকে পড়বে দেশের সীমিত আয়ের মানুষ।  এ কারণে গোটা অর্থনীতিই হুমকির মুখে পড়বে।  তারা বলেন, শিল্প খাতেও মূল্যবৃদ্ধির প্রভাব পড়বে।  শিল্প উৎপাদন ব্যয় বেড়ে গেলে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দামও বাড়বে। 

কৃষি উৎপাদন ব্যাপকভাবে ব্যাহত হবে।  এমনিতেই চাল, ডাল, তেল, নুন, পিয়াজসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের লাগামহীন মূল্য বৃদ্ধির ফলে জনজীবন বিপর্যস্ত।  এর পর বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধির ঘোষণা মরার উপর খাড়ার ঘা এর সামিল। 

বিবৃতিতে তারা জানান বিদ্যুতের মূল্যবৃদ্ধি শুধু অযৌক্তিক ও গণবিরোধী সিদ্ধান্তই নয়, এটি ‘ভোটারবিহীন’ সরকারের লুটপাট-নীতির বহিঃপ্রকাশ।  তারা এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি জানান।