২:৪১ এএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার | | ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

ভাইস চেয়ারম্যান তারা ও জেলা পরিষদ সদস্য শাহেদ গ্রেফতার

০৬ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৮:৪৫ এএম | মুন্না


আখলাছ আহমেদ প্রিয়, হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের বাহুবলে সংরক্ষিত নারী এমপি কেয়া চৌধুরীর উপর হামলার ঘটনায় বাহুবল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান যুবলীগ নেতা তারা মিয়া ও জেলা পরিষদের সদস্য আলাউর রহমান শাহেদকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। 

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে হবিগঞ্জের একদল ডিবি পুলিশ ও ঢাকা ডিবি পুলিশের সহযোগিতায় ঢাকার কদমতলী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করে। 

হবিগঞ্জ ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ও মামলার তদন্তকারী অফিসার শাহ আলম তাদেরকে আটকের কথা স্বীকার করে জানান, পুলিশেল বিশেষ প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাদেরকে ঢাকার কদমতলী এলাকার একটি বাসা থেকে আটক করা হয়েছে।  বুধবার তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করা হবে। 

উল্লেখ্য, ১০ নভেম্বর বাহুবল উপজেলার মিরপুরে এমপি কেয়া চৌধুরীর একটি অনুষ্ঠানে হামলার ঘটনা ঘটে।  ১৫ই নভেম্বর হামলা ঘটনার তদন্ত করেন সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মৃণাল কান্তি দে।  ১৬ নভেম্বর হামলা ঘটনার প্রতিবাদে বাহুবল উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেন বিক্ষুদ্ধ জনতা। 

১৮ নভেম্বর এ ঘটনায় বাহুবল থানায় একটি মামলা দায়ের হয়।  মামলাটি দায়ের করেন উপজেলার লামাতাসী ইউনিয়নের সদস্য ও মহিলা আওয়ামীলীগ নেত্রী পারভিন আক্তার।  মামলায় ভাইস-চেয়ারম্যান মোঃ তারা মিয়া, উপজেলা পরিষদের সদস্য আলাউর রহমান সাহেদ ও তারা মিয়ার গাড়ি চালক মোঃ জসিম উদ্দিনকে আসামী করা হয়। 

এ প্রেক্ষিতে তারা মিয়া ও শাহেদকে আটকের দাবীতে গত ২৬ নভেম্বর সিলেট মহাসড়ক অবরোধ করা হয়।  পরে প্রশাসনের আশ্বাসের প্রেক্ষিতে অবরোধ প্রত্যাহার করা হয়। 

এ ব্যাপারে এমপি কেয়া চৌধুরী জানান, তাদেরকে আটক করায় প্রশাসনসহ বাহুবল উপজেলাবাসীকে ধন্যবাদ জানাই।