১:২৯ পিএম, ১১ ডিসেম্বর ২০১৭, সোমবার | | ২২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

জুরাছড়িতে দুর্বৃত্তদের ব্রাশফায়ারে যুবলীগ নেতা নিহত

০৬ ডিসেম্বর ২০১৭, ০২:২৫ পিএম | সাদি


সুমন্ত চাকমা, জুরাছড়ি প্রতিনিধি : রাঙামাটি জুরাছড়ি উপজেলার দুর্বৃত্তদের ব্রাশ ফায়ারে উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি নিহত হয়েছেন।  মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাড়ে ৬টায়  জুরাছড়ি ইউনিয়নের মগবাজারস্থলে (মিতিংগাছড়ি) অরবিন্দু চাকমাকে(৪০) ব্রাশ ফায়ার করা হয়।  নিহত অরবিন্দু চাকমা জুরাছড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক পদে ছিলেন। 

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, মঙ্গলবার  উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অরবিন্দু চাকমা পাড়ার জৈনক এক বিয়ের অনুষ্ঠানের প্রস্ততির বিষয়ে সামাজিক আলোচনার কথা বলে বাড়ী থেকে বের হন।  বের হওয়ার ২০ গজ দূরুত্বে বাজারস্থলে এলে দৃর্বৃত্ত অতর্কিতে ব্রাশ ফায়ার করলে ঘটনাস্থলে অরবিন্দু চাকমার মুত্যু হয়।   তার ডান কানের নিচে, ডান ও বাম পেটে ও গলায় গুলি লাগে। 

খবর পেয়ে তৎক্ষনিক ভাবে থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আব্দুল বাছেদ, সেনা বাহিনীর মেজর সম্রাট তানভীর ও রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য জ্ঞানেন্দু বিকাশ চাকমা, জুরাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান ক্যানন চাকমা, রাঙামাটি আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের জেষ্ঠ্য সহ সভাপতি চারু বিকাশ চাকমাসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থলে গেছেন। 

অরবিন্দু চাকমার কনিষ্ঠ্য সন্তান সুশীল বিকাশ চাকমা জানান, প্রথম ব্রাশ ফায়ার হওয়ার পর দু‘জন জলপাই রঙের পোষাকে দৌড়ে এসে বাজারের সকলকে দোকানে ঢুকার জন্য বলে- আমরাও ঢুকে যায়।  পরে আবার ফায়ার হয় দোকান থেকে বের হয়ে দেখি বাবার নিথর দেহ মাটিতে পরে আছে। 

জুরাছড়ি থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃআব্দুল বাশেদ সত্যতা স্বীকার করে জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে থানায় আনা হয়েছে।  মামলার প্রস্ততি চলছে এবং আগামীকাল ময়না তদন্তের জন্য রাঙামাটি লাশ পাটানো হবে।  

জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের কার্য নির্বাহী সদস্য দীপংকর তালুকদার এ ঘটনার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে বলেছেন আঞ্চলিক রাজনৈতিক সংগঠনের দুর্বৃত্তদের দ্বারা হত্যাকান্ড ঘটেছে।  তিনি এ ঘটনায় দোষীদের দ্রুত গ্রেফতারের পূর্বক  শাস্তির দাবী জানান। 

উপজেলা আওয়ামী লীগের তাৎক্ষনিক কর্মসূচী : রাত সাড়ে ১১টায় আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগটনের বিক্ষোভ মিছিলের মাধ্যমে আগামী কাল সকাল সন্ধ্যা হরতালের ডাক দেওয়া হয়েছে।  মিশিলে উপজেলা চেয়ারম্যান উদয় জয় চাকমা, ভাইস চেয়ারম্যান রিটন চাকমা ও উপজেলা জেএসএসের সভাপতি মায়া চান চাকমার বিরুদ্ধে স্লোগান দেওয়া হয়। 

আগামীকাল হরতাল বিষয়ে রাঙামাটি আওয়ামী লীগের সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের জেষ্ঠ্য সহসভাপতি চারু বিকাশ চাকমা নিশ্চিত করে বলেন, দুবৃত্ত নয়-এরা সবাই চিহিৃত সন্ত্রাসী ! তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুক ব্যবস্থা নেওয়া না হলে আরো কঠোর কর্মসূচী দেওয়া হবে।