১০:২৫ এএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭, শুক্রবার | | ২৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

রোনালদোর রেকর্ডের রাতেও রিয়ালের কষ্টার্জিত জয়

০৭ ডিসেম্বর ২০১৭, ০৯:৪৮ এএম | মুন্না


এসএনএন২৪.কম : চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপ পর্যায়ের প্রতিটি (ছয়টি) ম্যাচেই গোল করার অনন্য রেকর্ড গড়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।  তবুও বুধবার রাতে বরুসিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে ৩-২ গোলের কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ।  দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এ জয়ে দ্বিতীয় পর্বে গ্রুপ রানার্সআপ হিসেবে জায়গা করে নিয়েছে জিনেদিন জিদানের দল। 

বোরহা মায়োরাল ও রোনালদোর গোলে শুরুতেই এগিয়ে যায় শিরোপাধারীরা।  আক্রমণ-প্রতি আক্রমণে জমে উঠা ম্যাচে দুই গোলই শোধ করেন আউবামেয়াং।  এতে আরেকটি হোঁচটের শঙ্কায় থাকায় রিয়ালকে দারুণ এক জয় এনে দেন ভাসকেস।    

ম্যাচের অষ্টম মিনিটে ইসকোর কাছ থেকে বল পেয়ে খুব কাছ থেকে জালে পাঠান মায়োরাল।  চার মিনিট পর সমর্থকদের আনন্দের আরও বড় উপলক্ষ এনে দেন রোনালদো।  কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন তারকা ফরোয়ার্ড।  এই গোলে ইতিহাসের প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে একই আসরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বের ছয় ম্যাচে গোলের রেকর্ড গড়েন তিনি। 

একই সঙ্গে লিওনেল মেসির রেকর্ডে ভাগ বসান রোনালদো।  চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্বে সর্বোচ্চ ৬০ গোলের রেকর্ড যৌথভাবে এখন সময়ের সেরা দুই ফুটবলারের। 

এরপরই জেগে উঠে বরুসিয়া।  একের পর এক আক্রমণ করে ব্যস্ত রাখে রিয়ালের রক্ষণকে।  ৪৩তম মিনিটে মার্সেলের ক্রসে দারুণ হেডে ব্যবধান কমান আউবামেয়াং।  সঙ্গে লেগে থাকা সের্হিও রামোসকে ফাঁকি দিয়ে ঝাঁপানো হেডে দলকে ম্যাচে ফেরান তিনি। 

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে বের্নাবেউকে স্তব্ধ করে দেন আউবামেয়াং।  অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে বল জালে পাঠান তিনি।  এতে শঙ্কায় পড়া রিয়াল ৮১তম মিনিটে আবার এগিয়ে যায়।  থিও এর্নান্দেসের হেডে বল পেয়ে জালে পাঠান ভাসকেস। 

এই জয়ে 'এইচ’ গ্রুপের রানার্সআপ হয়ে শেষ ষোলোয় ওঠা রিয়ালের পয়েন্ট ১৩।  জার্মানির দল বরুসিয়ার পয়েন্ট মাত্র ২।