৫:৪১ এএম, ২৪ জুন ২০১৮, রোববার | | ১০ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

গুগলে কিছু বিষয় সার্চ করলেই নতুন বছরে মহাবিপদ

০১ জানুয়ারী ২০১৮, ১০:৪৪ এএম | রাহুল


এসএনএন২৪.কম : গুগলে আমরা প্রতিদিনই বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে সার্চ করে থাকি।   তবে কয়েকটি বিষয় সার্চ না করাই উচিত। 

জেনে নিন এমন কয়েকটি জিনিস
রোগের লক্ষণ— স্বাস্থ্য নিয়ে বিভিন্ন ধরনের সমস্যায় আমরা মাঝে মাঝেই গুগলে সার্চ করে থাকি রোগের লক্ষণ, নিরাময়ের সম্পর্কে জানার জন্য।   এ কাজটি থেকে বিরত থাকুন।  এই ওয়েবসাইটগুলি বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের দ্বারা পরিচালিত নয়।   ভুল তথ্য জেনে বিভ্রান্ত হতে পারেন। 

সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড— বিভিন্ন সন্ত্রাসী ক্রিয়াকাণ্ড সংক্রান্ত বিষয়ে, ধরা যাক, বোমা কিভাবে তৈরি হয়— সাধারণ মানুষের এমনিতেই কৌতূহল থাকে।   তবে দেশের নিরাপত্তা ও মাদক নিয়ন্ত্রণ সংস্থা সবসময়ই এ ধরনের সার্চ কারা করেছে সে ব্যাপারে কড়া নজরদারি করে থাকে।   সংস্থাগুলোর ডাটাবেসে এ সব সার্চের আইপি অ্যাড্রেস ধরা সম্ভব। 

ক্যান্সার— ছোটখাটো অনেক রোগের উপসর্গ অনেক সময় ক্যান্সারের মতো বড় বড় অসুখের সঙ্গে মিলে যায়।   যেমন- মাথা ঘোরা, দুর্বলতা, বমি বমি ভাব প্রভৃতি সমস্যা দেখা দিলে গুগলে এর কারণ খোঁজেন অনেকে।   এর ফলে অনেকেই ক্যান্সারে আক্রান্ত না হওয়া সত্ত্বেও শুধু শুধু আতঙ্কিত হয়ে পড়েন। 

ছারপোকা— যদি রাতের ঘুম খারাপ করতে না চান, দয়া করে ছারপোকার উপদ্রব কী জিনিস এ সম্পর্কে জানতে গুগলে সার্চ করতে যাবেন না।   শুধু ছারপোকা নয়, কোনও বিষাক্ত পোকামাকড়ের সংক্রমণ নিয়ে গুগলে সার্চ না করাই ভালো। 

ত্বকের অবস্থা— অনেক ধরনের চর্মরোগ দেখা যায় যেগুলো বেশিরভাগই ক্ষতিকর।   গুগলে এই সমস্ত জিনিস সার্চ করলে বিভ্রান্তিকর ছবি দেখা যায়, যা মানসিক শান্তি নষ্ট করার পক্ষে যথেষ্ট। 

ধুমপায়ীর শ্বাসতন্ত্র— গুগলে কখনও মাদকাসক্তি ছাড়ানোর উপায় খুঁজতে যান।   একদম নয়।   বরং বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া উচিত। 

ভয়ঙ্কর জীবজন্তু— যদি নতুন ধরনের কোনও ফোবিয়ায় আক্রান্ত হতে না চান তবে ভয়ঙ্কর জীবজন্তু সম্পর্কে গুগলে সার্চ না করাই ভালো। 

নিজের নাম— নিজের নাম দিয়ে অনেকেই গুগলে সার্চ করে থাকেন।  মারাত্মক বিষয়টি হল, গুগলে হয়তো আপনি নিজের সম্পর্কে এমন কিছু দেখলেন, যা পুরোপুরি অনভিপ্রেত।  এতে আপনার সমস্যা অহেতুক বাড়বে। 

ব্ল্যাকহেড দূর করা— মেয়েরা অনেক সময় নাকের উপর ‘ব্ল্যাক হেডস’ দেখা গেলেই প্রতিরোধের উপায় জানতে সার্চ করেন গুগলে।   বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া এক্ষেত্রে বাঞ্ছনীয়। 

বাচ্চা জন্ম দেওয়া— অন্তঃসত্ত্বা মহিলারা ডেলিভারির আগে পুরো প্রক্রিয়া জানার জন্য গুগলে জানতে চান।   এটি একদমই উচিত নয়।   এতে মহিলারা আগেই আতঙ্কিত হয়ে পড়বেন।