১১:০৪ এএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৭ সফর ১৪৪০


ইউএনও নাজমুন নাহারের শীতার্তদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

১০ জানুয়ারী ২০১৮, ১০:৩২ এএম | জাহিদ


হামিদা আক্তার, ডিমলা (নীলফামারী) প্রতিনিধি : কনকনে শীত আর হিমেল হাওয়ায় উত্তরাঞ্চলে মানুষজনের যবুথবু অবস্থা।  এবারের শীতে উত্তরাঞ্চলের সীমান্তবর্তী জেলা নীলফামারীর ডিমলায় উত্তর-পূর্বে তিস্তানদী বেষ্টিত ভারতের হিমালয়ের পাদদেশে অবস্থান করছে এ অঞ্চলের মানুষ। 

দেশের রেকর্ড ভেঙ্গে এবারেই নীলফামারীতে সর্বনিম্ন আবহাওয়ার তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় আড়াই থেকে ৩ ডিগ্রী সেলসিয়াস। 

ডিমলা আবহাওয়া অফিস সুত্রে জানা যায়, এ বছরের জানুয়ারীর শুরু থেকেই নীলফামারীর ডিমলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্র বিরাজ করছিলো।  এ অবস্থায় গেল এক সপ্তাহ ধরে ডিমলার তিস্তাপাড়সহ সর্র্বত্রই অসহায় দরিদ্র মানুষেরা উষ্ণ কাপড়ের অভাবে দিন কাটছেন কোন মতে শীতে জবুথবু হয়ে।  আর এ অবস্থায় ডিমলা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছা. নাজমুন নাহার ব্যতিক্রমী উদ্যোগে এসব ছিন্নমুল মানুষে মাঝে নিজ হাতেই শীত বন্ত্র বিতরণ করছেন বিরামহীন ভাবে। 

এ নির্বাহী কর্মকর্তা অফিয়াল কাজের পাশাপাশি যখনই সুযোগ পাচ্ছেন তখনই ছুটে যাচ্ছেন এসব হতদরিদ্র শীতার্ত মানুষের কাছে।  কোন রকম তালিকা ছাড়াই সরজমিনে গিয়ে শীতার্তদের অবস্থা অবলোকন করেই ইউএনও নিজ হাতেই শীতার্তদের হাতে তুলে দিচ্ছেন শীতবস্ত্র।  ফলে বাদ পড়ছেন না গরীব-দুখী,সহায়-সম্বলহীন ও হতদরিদ্র শীতার্তরা। 

এলাকার মানুষের কাছে এ যেন এক অন্যরকম উদ্যোগ ইউএনও’র।  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার হাতের পরশে হিমেল হাওয়া আর প্রচন্ড ঠান্ডাও যেন কাবু করতে পারছে না শীতার্তদের।  শীতবস্ত্র হাতে পেয়েই দু’হাত তুলে মমতাময়ী মায়ের ভূমীকায় ইউএনও নাজমুন নাহার এর দীর্ঘায়ু ও সু-স্বাস্থ্য কামনা করে মুনাজাত করেছন এতিম জনম দুখীরা। 

তিনি উপজেলার কয়েকটি এতিম খানায় অবস্থানকারী বাবা-মা হারা ও পথশিশুদের মাঝে শীতবস্ত্র তুলে দিয়েছেন।  দিন-রাত ছুটে চলেছেন তিনি শীতার্তদের দ্বারে।  সার্বক্ষনিক খোঁজ খবর নিচ্ছেন শীতার্তদের।  নিজ হাতেই শীতবন্ত্র তুলে দিয়ে আত্বতৃপ্তিতে প্রাণ ভরে নিশ্বাস নিচ্ছেন এ কর্মকর্তা।  ইউএনও’র প্রতিনিয়ত বিরামহীন এ ছুটে চলা যেন স্থানীয়দের মাঝে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। 

এ শীতবস্ত্র বিতরণ কালে সাথে থাকেন প্রকল্প বাস্তবায়ন কার্যালয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী ফেরদৌস আলম, ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ, স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও সাংবাদিকবৃন্দ প্রমূখ। 

উপজেলা প্রশাসনের সূত্র মতে, এবারে ডিমলা উপজেলায় শুধু মাত্র ইউএনও উদ্যোগে প্রায় ৭ সহস্রাধিক শীতার্ত মানুষের মাঝে এসব  শীতবস্ত্র তুলে দেওয়া হচ্ছে।