৮:০০ পিএম, ২৩ জানুয়ারী ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯

South Asian College

বাড়তি সতর্কতা নিতে বলেছে যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশ ভ্রমণে নাগরিকদের

১১ জানুয়ারী ২০১৮, ০৮:০০ এএম | রাহুল


এসএনএন২৪.কম : ট্রাম্প প্রশাসনের নতুন ভ্রমণ নির্দেশিকায় বাংলাদেশকে লেভেল-২ শ্রেণিতে অন্তর্ভুক্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্র। 

এর মানে অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদের কারণে বাংলাদেশ ভ্রমণের সময় দেশটির নাগরিকদের সতর্কতা অবলম্বন করার উপদেশ দেওয়া হয়েছে।  বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতকেও একই শ্রেণিভুক্ত করা হয়েছে। 

দেশটির কর্মকর্তারা বলেছেন, গ্রাহকবান্ধব নতুন ভ্রমণ নির্দেশিকায় দেশগুলোকে চার ভাগে ভাগ করে ভ্রমণের জন্য আলাদা উপদেশ দেওয়া হয়েছে।  এক্ষেত্রে বাংলাদেশকে লেভেল-২ এ রাখা হয়েছে।  অর্থাৎ মার্কিন নাগরিকদের বাংলাদেশে ভ্রমণের সময় বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে।  পাকিস্তানকে লেভেল-৩ এ রাখার মাধ্যমে দেশটিতে ভ্রমণের বিষয়টিই পুনর্বিবেচনা করতে বলা হয়েছে।  লেভেল-১ ভুক্ত দেশগুলোতে চলাচলে কোনও বিধিনিষেধ নেই।  আর লেভেল-৪ ভুক্ত দেশগুলোতে ভ্রমণ করতে নিষেধ করা হয়েছে।  আফিগানিস্তানকে লেভেল-৪ ভুক্ত দেশের তালিকায় রাখা হয়েছে। 

কমকর্তারা আরও বলেন, এখন বেশির ভাগ দেশেরই এমন ভ্রমণ নির্দেশিকা রয়েছে।  আগের সব ভ্রমণ নির্দেশিকা নতুন পদ্ধতিতে করা হচ্ছে।  যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ‘এ পদ্ধতিতে মার্কিন নাগরিকদের স্বচ্ছ, সময়োপযোগী ও বিশ্বস্ত নিরাপত্তার পাশাপাশি নিরাপত্তা বিষয়ক তথ্য দেওয়া হচ্ছে। ’

মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আরও বলা হয়, ‘অপরাধ ও সন্ত্রাসবাদ বেড়ে যাওয়ার বাংলাদেশে বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে বলা হয়েছে। ’ এছাড়া দেশটির নাগরিকদের বাংলাদেশের ঢাকা ও দক্ষিণ-পূব অঞ্চলের চট্টগ্রাম পার্বত্য অঞ্চলে ভ্রমণের বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করতে বলেছেন।  বাংলাদেশে সশস্ত্র ডাকাতি, হামলা ও ধর্ষণের মতো সহিংস অপরাধের সংখ্যা বেড়েছে বলেও মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে। 

নির্দেশিকায় বলা হয়, সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো বাংলাদেশে সম্ভাব্য হামলার পরিকল্পনা করে যাচ্ছে।  তারা সামান্য বা কোনও হুমকি না দিয়েই হামলা চালাতে পারে।  তারা পর্যটন এলাকা, যোগাযোগ কেন্দ্র, বাজার বা শপিংমল, রেস্টুরেন্ট, মন্দির ও স্থানীয় সরকারি অফিসগুলোতে হামলা চালাতে পারে বলে নির্দেশিকায় বলা হয়েছে।  এতে আরও বলা হয়, দেশটির শহরাঞ্চলে ব্যাপক পুলিশ উপস্থিতি থাকা সত্বেও সন্ত্রাসী হামলার আশঙ্কা রয়েছে। 

মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর জানিয়েছে, যখন পুরো ভ্রমণ নির্দেশিকা প্রস্তুত করা হবে তখন বিভিন্ন দেশের বিশেষ বিশেষ স্থানকে আলাদা লেভেলে অন্তর্ভূক্ত করা হবে। 

Abu-Dhabi


21-February

keya