১১:৫৮ পিএম, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | | ৫ রবিউস সানি ১৪৪০




সাতক্ষীরার দেবহাটায় উন্নয়ন মেলার দ্বিতীয় দিনে মুখরিত উপজেলা পরিষদ চত্ত্বর

১২ জানুয়ারী ২০১৮, ০৯:০৫ পিএম | জাহিদ


নাজমূল হাসান, দেবহাটা (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার দেবহাটায় উন্নয়ন মেলার দ্বিতীয় দিনে উপচে পড়া ভীড়।  দর্শনার্থী ও সাধারন মানুষের পদচরনায় মুখরিত উপজেলা পরষিদ চত্ত্বর।  মেলার দ্বিতীয় দিনে নানা সাজে সজ্জিত মুক্তমঞ্চ চত্বর। 

বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া উন্নয়ন মেলা ২০১৮’র দ্বিতীয় দিনে বেলুন আর ফেস্টুনে ভরা মেলা স্টলে সরকারের নানা রকম উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডের প্রদশনী আর রং বে-রঙের আলোর ঝলকানিতে মুখরিত হয়ে উঠেছিল।  দ্বিতীয় দিনের শুরুতে সকালে কুয়াশাছন্ন শৈত্য প্রবাহের মধ্যেও  দর্শনার্থীদের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মত। 

মেলাটি ঘিরে দেবহাটা থানা পুলিশের পক্ষ থেকে নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা।  প্রবেশ পথে প্রধান ফটকে পুলিশের পক্ষ থেকে বসানো হয়েছে একটি নিরাপত্তা স্টল।  এছাড়া মেলায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার হাফিজ আল-আসাদ সার্বক্ষানিক উপস্থিত থেকে মেলাকে করে রেখেছিলেন আরও প্রাণবন্ত। 

এবারের উন্নয়ন মেলায় স্টল বসছে ৫১ টি।  স্টল গুলো সাজিয়েছেন নানান সাজে, যা চোখে পড়ার মত।  তার মধ্যে স্থানীয় ক্ষুদে বিজ্ঞানী আশরাফুল ইসলামের তৈরী সেচ পাম্প প্রকল্পের প্রদশনী চিত্র দশনার্থীদেও কাছে আকর্শনীয় হয়ে উঠেছিল।  সকলের বিনোদনের জন্য মেলার স্টল সংলগ্ন মুক্তমঞ্চে প্রতিদিন থাকছে স্থানীয় শিল্পীদের পরিবেশনায় বাংলাদেশ ও স্বাধিনতা যুদ্ধের ইতিহাস বিষয়ক বিভিন্ন নাটক এবং সাংকৃতিক অনুষ্ঠান। 

তাছাড়া সাধারন ছাত্র-ছাত্রীদের মেধা বিকাশে ছিল সাধারণ জ্ঞানের প্রতিযোগিতা।   এছাড়া ‘উন্নয়নের রোল মডেল, শেখ হাসিনার বাংলাদেশ’ এই মূলমন্ত্রকে ধারণ করে ২০২১ সালের মধ্যে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত বাংলাদেশ গঠনে সরকারের উন্নয়ন জন সাধারণের সামনে উপস্থাপন করা হয়েছিল এ মেলায়। 

উলে­খ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়ে তোলার লক্ষে ১০টি বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণের ঘোষণার মাধ্যমে দেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। 

১০টি বিশেষ উদ্যোগ হচ্ছে- একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্প, আশ্রয়ন প্রকল্প, ডিজিটাল বাংলাদেশ, শিক্ষা সহায়তা কর্মসূচি, নারীর ক্ষমতায়ন কর্মসূচি, সবার জন্য বিদ্যুৎ, সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি, স্বেচ্ছাসেবী উন্নয়ন ও মানসিক স্বাস্থ্য, বিনিয়োগ উন্নয়ন ও পরিবেশ সংরক্ষণ।  মেলায় এ বিষয়গুলোর উপর বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হবে। 



keya