৯:৪৩ পিএম, ১৫ অক্টোবর ২০১৮, সোমবার | | ৪ সফর ১৪৪০


কলেজ ছাত্রীকে তিন দিন ম্যাচে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ

১৪ জানুয়ারী ২০১৮, ০৬:১৩ পিএম | জাহিদ


হাবিব সরোয়ার আজাদ, সিলেট প্রতিনিধি : বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক কলেজ ছাত্রীকে টানা তিন দিন ম্যাচে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ব বিদ্যালয়ের সাইফুল ইসলাম নামের এক শিক্ষার্থীকে থানা পুলিশ শনিবার ভোররাতে গ্রেফতার করেছে। 

সাইফুল সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কোরবান নগর ইউনিয়নের মাইজবাড়ি পূর্ব পাড়ার আকরম আলীর ছেলে ও শাবির ইংরেজী তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। 

মামলা ও ভিকটিম সুত্রে জানা গেছে, শাবির শিক্ষার্থী সাইফুল সুনামগঞ্জের সুরমা ইউনিয়নের সাহবনগর গ্রামের কলেজ পড়–য়া এক কিশোরীর সাথে ফেসবুক ও মুঠোফোনের মাধ্যমে গত ৩ বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তুলে। 

এ পর্যায়ে ওই কিশোরীকে ফুসলিয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ১১ জানুয়ারী বাড়ি থেকে সিলেটের আখালিয়ায় নিজ ম্যাচে তুলে।  ম্যাচে টানা তিন দিন আটকে রেখে ওই কিশোরীকে ধর্ষণের পর ১৩ জানুয়ারী শনিবার বিকলে কিশোরীকে সুনামগঞ্জ বাস ষ্টেশনে ফেলে রেখে সাইফুল পালিয়ে যায়। 

ভিকটিম জানায়, ম্যাচে টানা দিন দিন আটকে রেখে জোরপূর্বক ধর্ষণের পর কাজি অফিসে গিয়ে বিয়ের কাজ সম্পন্ন করার কথা বলে সাইফুল কৌশলে মাইক্রোবাসে তুলে রবিবার বিকেলে ফের সুনামগঞ্জ বাস ষ্টেশনে আমাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। 

সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. সহিদুল্লাহ রবিবার জানান, ধর্ষণের শিকার কলেজ ছাত্রী শনিবার রাতে থানায় মাশরা দায়েরের পর এসআই জালালের নেতৃত্বে সিলেট কোতয়ালী ও জালালাবাদ থানার একদল পুলিশের সহযোগীতায় শনিবার ভোররাতে আখালিয়ার ম্যাচ থেকে সাইফুলকে গ্রেফতার করে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানায় নিয়ে আসা হয়। 


keya