৫:০৭ এএম, ১৬ নভেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | | ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০




খোলাবাড়িয়া বিলের জলাবদ্ধতা নিস্কাশনে প্রশাসনের উদ্যোগ

১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১১:০২ এএম | জাহিদ


মোঃ রাশেদুল ইসলাম, নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের নলডাঙ্গার উপজেলার হালতি খোলাবাড়িয়া বিলের জলাবদ্ধতা নিস্কাশোনে প্রশাসনের উদ্যোগ।  সোমবার সকালে সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, উপজেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় বাঁধ অপসারনের কাজ চলছে।  এতে স্থানীয় কৃষকের মুখে হাসি ফোটেছে। 

জেলা প্রশাসক  শাহিনা খাতুনের নির্দেশে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মু: রেজা হাসানের উপস্থিতিতে শনিবার থেকে এক্সকাভেটর দিয়ে জিয়া খালের বিভিন্ন স্থানে  তৈরি অবৈধ বাঁধ অপসারণের কাজ শুরু করেন।  এ সময় তার সাথে স্থানীয় জন প্রতিনিধি সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। 

খালের বিভিন্ন বাধা অপসারণ কালে উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা মো:রেজা হাসান জানান, আপাততঃ এ অপসারণ কাজ চললেও স্থায়ী ভাবে যাতে এই খাল সংস্কার ও অবৈধ দখল মুক্ত করা যায় তার উদ্যোগ নেবে জেলা প্রশাসন।  কৃষকরা যাতে আর দুর্ভোগে না পড়েন তার জন্য যা কিছু করার প্রয়োজন তা করা হবে।  উলে­খ্য অবৈধভাবে মৎস্য শিকারের লক্ষ্যে এলাকার প্রভাবশালীরা খালের বিভিন্ন স্থানে বাঁধ দেয়।  এতে করে গত কয়েক বছর যাবত হালতি খোলাবাড়িয়া বিলের বাঁশিলা তেঘোর এলাকার শত শত হেক্টর জমিতে জলাবদ্ধ হয়ে থাকায় সময় মত কৃষক বোরো ধান রোপন করতে পারেন না।  ফলে এক ফসলি জমিতে এক দিকে যেমন ফলন বিপর্যয় ঘটে, অন্যদিকে বন্যা এসে ধান তলিয়ে যায়। 

এরই কারণে এলাকার দিশেহারা কৃষকরা মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচীপালন করে আসছে।  গত মৌসুমেও সংবাদ প্রচারের পর তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শারমিন আক্তার জাহান অস্থায়ী ভাবে খালটি খনন করে পানি অপসারণ করেছিলেন।  কিন্তু, সংস্কার চলা অবস্থায় কাজ অসমাপ্ত রেখে চলে যান সংশ্লিষ্ট লোকজন।  ফলে আবারো জলাবদ্ধতায় পড়ে বিলের কৃষকরা।  এ বিষয়টি জেলা প্রশাসক শাহিনা খাতুন গুরুত্বের সাথে নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো:রেজা হাসানকে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন। 



keya