৩:১৯ এএম, ১৯ অক্টোবর ২০১৮, শুক্রবার | | ৮ সফর ১৪৪০


প্রশ্ন অরিজিত ভক্তদের, সালমান খানের এত পাকিস্তান প্রীতি কেন?

২০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০৯:০৪ এএম | নকিব


এসএনএন২৪.কম : বলিউডে তারকাদের সঙ্গে তারকাদের বিতর্ক নতুন কিছু নয়।   নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বের জেরে কেউ অনুষ্ঠান বর্জন করেন, কেউবা প্রতিপক্ষকে তুলোধুনো করে ছাড়েন।  

অাবার কেউ প্রতিশোধ নেন সোশ্যাল সাইটে বিতর্কের ঝড় তুলে।   এবার বলিউড সুপারস্টার সালমান খানকে একহাত নিলেন অরিজিত সিংয়ের ভক্তরা। 

৬ বছর আগে এক অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে সালমানকে মজা করে একটি কথা বলেছিলেন গায়ক অরিজিৎ সিং।  তবে তাতেই সালমান ক্ষুব্ধ হয়েছেন জেনে বহুহার ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছেন।  এবং শুধু মজা করার জন্যই ওই কথা বলেছেন বলেও জানিয়েছেন।  তবে তাতেও বরফ গলেনি।  সে ঝামেলা এখনো জিইয়ে রেখেছেন বলিউড ভাইজান।  আর বারবার তারই খেসারত দিতে হয়েছে অরিজিৎ সিংকে। 

৬ বছর আগের সেই অ্যাওয়ার্ড ফাংশনে এক্কেবারেই ক্যাজুয়াল শার্ট, চটি পরেই হাজির হয়েছিলেন অরিজিৎ সিং।  যেখানে তাঁকে সেরা নবাগত গায়কের পুরস্কার দেওয়া হয়।  আর ওই শোতে সঞ্চালক ছিলেন সালমান খান।  অরিজিৎ সিংকে ওভাবে অ্যাওয়ার্ড নিতে স্টেজে উঠতে দেখে সালমান বলেন 'শো গ্যায়ে থে ক্যায়?' (ঘুমাচ্ছিলে নাকি) অরিজিৎও মজা করে উত্তর দেন 'কেয়া স্যার আপ লোগো নে সুলা দিয়া।  ' উঠতি গায়ক অরিজিতের মুখে এমন জবাব সালমানের পছন্দ হয়নি। 

ব্যস তারপর থেকে অজস্রবার সল্লু ভাইয়ের জন্যই কাজ খোয়াতে হয়েছে বাংলার অরিজিৎকে।  যদিও পরে বহুবার, বহুভাবে ভাইজানের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন অরিজিৎ।  এমনকি ফেসবুকেও ক্ষমা চেয়ে লম্বা একটা খোলা চিঠি লিখেছিলেন।  তবে তাতেও ভাইজানের মন গলেনি কিছুতেই। 

বহুবার অরিজিতের গাওয়া গান বাদ দিয়ে দিয়েছেন সালমান।  নতুন করে অন্য কাউকে দিয়ে গান গাইয়েছেন।  এবারও তেমনটাই হল।  ‘টাইগার জিন্দ হ্যায়’-তে অরিজিতের গাওয়া ‘দিল দিয়া গলন’ গানটি বাদ দিয়ে নতুন করে তা পাকিস্তানি গায়ক আতিফ ইসলামকে দিয়ে গাইয়েছিলেন। 

ফের সোনাক্ষী-করণ জোহর অভিনীত ‘ওয়েলকাম টু নিউ ইয়র্ক’ ফিল্মেও গান গাওয়ার কথা ছিল অরিজিৎ সিংয়ের।  তবে ওই ছবিতে বিশেষ চরিত্রে সালমান খানকে দেখা যাবে।  তাই সেখানেও অরিজিতকে সরিয়ে পাকিস্তানের রাহাত ফতেহ আলি খানকে দিয়ে গান গাওয়ানোর কথা শোনা যাচ্ছে। 

আর এতেই অরিজিতের ভক্তরা সালমনের উপর খাপ্পা।  সোশ্যাল সাইটে উগরে দিলেন সব ক্ষোভ। 

ইতিমধ্যেই সালমানের এই আচরণের তীব্র নিন্দা করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।  তিনি ভারতের ছবিতে পাকিস্তানি গায়কদের গান নিষিদ্ধ করার দাবি জানিয়েছেন।  এদিকে সোশ্যাল সাইটেও সালমানের প্রতি ক্ষোভ উগরে দিয়ে ইন্টারনেটে অরিজিত ভক্তরা জানতে চেয়েছে তাঁর এত পাকিস্তান প্রীতির কারণ কী? কেউ কেউ বলেছেন, অরিজিৎ সিং গানটা গাইলে অনেক বেশি ভালো গাইত। 

তবে সালমান ভক্তদের মতে, সালমানের মতো এমন একজন উদার মনের মানুষকে নিয়ে এমন প্রশ্ন করা ঠিক হয়নি অরিজিত ভক্তদের।  কারণ সালমান খান একটুও সাম্প্রদায়িক মানসিকতা সম্পন্ন মানুষ নন।  আবার অনেকের দাবি, সালমানকে নিয়ে এমন  প্রশ্ন করতে গিয়ে অরিজিত ভক্তরাই বরং সাম্প্রদায়িক মানসিকতার পরিচয় দিচ্ছেন। 


keya