২:১৭ এএম, ২০ জুন ২০১৮, বুধবার | | ৬ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

হাতে বিয়ের আংটি ও মেহেদী রাঙ্গা মৃতদেহ টি ব্রাহ্মনবাড়ীয়ার আখিঁ মনির

১৩ মার্চ ২০১৮, ০৫:১০ পিএম | সাদি


আশরাফুল মামুন, ব্রাহ্মণবাড়ীয়া প্রতিনিধি : হাতের মেহেদির রঙ এখনও মুছে যায়নি।  বিয়ের আংটিও রয়েছে আঙুলে, ভাইরাল হওয়া লাশের ছবিটি ব্রাহ্মনবাড়ীয়ার নববধূ আখিঁ মনির। 

মাত্র ১৩ দিন হল বিয়ে হয়েছে আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসিরের।  সবার কাছে বিদায় নিয়ে সোমবার নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে হানিমুনের উদ্দেশে বাসা থেকে বের হন তারা এটাই ছিল তাদের শেষযাত্রা আর ফেরা হয়নি। 

ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানে উঠেন।  সময়মতো কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরেও পৌঁছান।  কিন্তু বিধিবাম অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয় বিমান।  বিমানেই প্রাণ হারান এ নবদম্পতি। 

মঙ্গলবার নিহত আঁখি মনির বন্ধু কুশল ইয়াসির এ তথ্য জানান।  তিনি বলেন, নিহত নবদম্পতি আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসিরের বাসা রাজধানীর মহাখালীতে।  আখিঁর গ্রামের বাড়ী ব্রাহ্মনবাড়ীয়া বাঞ্চারামপুর থানার রুপসদী এলাকায় এবং মিনহাজ বিন নাসিরের গ্রামের বাড়ী কুমিল্লার হোমনায়। 

এদিকে আখিঁ মনির লাশটি সনাক্ত হওয়ার পর তার গ্রামের বাড়ীতে ও এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।  

২৮ ফেব্রুয়ারি হলুদ আর ৩ মার্চ রিসিপশন হয় আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসিরের।  জাঁকজমকপূর্ণ ওই অনুষ্ঠানের পর পরিবারের উদ্যোগে তাদের নেপালে হানিমুনে পাঠানো হয়। 

কুশল জানান, কাঠমান্ডুতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্ত হওয়ার পর আঁখি ও মিনহাজের মোবাইল ফোন থেকেই দেশে তাদের মৃত্যুর খবর আসে। 

দূর্ঘটনার পর থেকে এ ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রীতিমত ভাইরাল হয়ে গেছে।  অনেকেই এই ঘটনা কে বিমান দূর্ঘটনার মধ্যে সবচেয়ে হৃদয়বিদারক বলে উল্লেখ্যে করেছেন।