৫:৪৮ পিএম, ২৬ এপ্রিল ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ১০ শা'বান ১৪৩৯

South Asian College

‘আকঁব আমরা, দেখবে বিশ্ব’

নববর্ষ বরণে ৪ কি.মি. সড়ক আলপনায় রাঙ্গাল নান্দাইলের ছাত্রীরা

১৩ এপ্রিল ২০১৮, ০৬:৫৪ পিএম | রাহুল


শাহজাহান ফকির, নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ ময়মনসিংহের নান্দাইলে বাংলা নববর্ষ বরণে ৪ কি.মি. মহাসড়ক আলপনায় রাঙ্গাল নান্দাইল পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা।  আপাত দৃষ্টিতে এটি বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘতম সড়ক আলপনা।  পুরনো রেকর্ড ২০১৭ সালে দূর্গাপূজায় ভারতের নদীয়া’য় ২.৯ কিলোমিটার রাস্তায় আলপনায় রাঙ্গিয়ে গিনিজ বুকে নামকে পেছনে ফেলতে গ্রিনেজ বুক অব দ্যা ওয়ার্ল্ডে নাম উঠাতে তাদের এই উদ্দ্যোগ নেয়। 

১লা বৈশাখ উপলক্ষ্যে শুক্রবার ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ হাইওয়ে সড়কের উপজেলা সদর থেকে দুই দিকে মোট ৪ কিলোমিটার রাস্তায় এই আলপনা’র কাজ শুরু করে।  শুক্রবার সকালে নান্দাইল আসনের সংসদ সদস্য মো. আনোয়ারুল আবেদীন খাঁন তুহিন আনুষ্ঠানিকভাবে আলপনা শুরুর কাজ উদ্বোধন করেন। 

এসময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মালেক চৌধুরী স্বপন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. হাফিজুর রহমান, রেইনবো পেইন্টসের প্রধান পরিচালনা কর্মকর্তা কামরুল হাসান, হেড অব মার্কেটিং ফাহিম হোসেন, ডেপুটি ব্রান্ড ম্যানেজার নাজমুল আকন্দ ও ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (সেলস) মোঃ সাজেজুল আলম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুন ফতেমা পপি প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। 

আরএফএল কোম্পানীর রেইনবো’র পক্ষ থেকে যাবতীয় রং সরবরাহ করা হয়েছে।  এতে ৪০টি দলে প্রায় ৮ শতাধিক ছাত্রী সকাল থেকে রাস্তায় আলপনা আকাঁ শুরু করনে।  উল্লেখ্য নান্দাইল উপজেলায় তথা বৃহত্তর ময়মনসিংহ এলাকায় এধরনের আলপনা নির্মানের কাজ এই প্রথম।  ৮শতাধিক ছাত্রী সরাসরি আলপনা কাজের জড়িত থাকলেও প্রায় ১৬শত ছাত্রী একযোগে তাদের সহযোগীতা ও উৎসাহদানের জন্য রাস্তার পার্শ্বে উপস্থিত থাকে। 

সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদীন খাঁন তুহিন উক্ত আলপনার কাজে সার্বিক সহযোগীতা করেন।  দেশ ও বিদেশের সকল সড়ক আল্পনাকে ছাড়িয়ে আজ নান্দাইলে অঙ্কিত আল্পনাটিই বিশ্বের দীর্ঘতম সড়ক আল্পনা হিসেবে স্বীকৃতি পেয়ে গিনেস বুকে নাম উঠবে এমনটাই প্রত্যাশা নান্দাইলবাসির। 

রেইনবো পেইন্টসের হেড অব মার্কেটিং ফাহিম হোসেন জানান, দেশের যেকোনো বড় অর্জনের সঙ্গে যুক্ত হতে পারা গর্বের বিষয়।  এছাড়া রেইনবো পেইন্টস সমাজ সেবামূলক নানা কাজের সঙ্গে জড়িত।  আমরা জেনেছি এই সড়কে অনেক সড়ক দুর্ঘটনার কথা।  তাই এই আলপনার সঙ্গে আমরা সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সচেতনতামূলক নানা প্রচারণার উদ্যোগ নিয়েছি। 

এসময় ওই সৃজনশীল কর্মকান্ডের উদ্দ্যোক্তা নান্দাইল পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী দীপানিতা দ্বীপ, অর্থীময়ী দে, ফারিয়া আফরিন, মৌমুমী আক্তার, আফসানা শারমীন, আদিয়া সুলতানা, নুসরাত জাহান রিয়া,ঐশী কর তৃনা,রায়হানা ইসলাম জানান, নান্দাইলের স্কুল ছাত্রীদের উদ্যোগে গিনেজ বুকে রেকর্ড গড়তে ৪ হাজার মিটার রাস্তায় আলপনা আকাঁর কাজের প্রায় ৭০ ভাগ শেষ হয়েছে, বাকী কাজ শেষ করা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। ‘

চৈত্রের খর তাপ মাথায় নিয়ে অসহ্য গরমে যবুতবু হয়েও মনের সাহস আর শক্তিকে পুঁজি আমরা গিনেজ বুকে রেকর্ডের দ্বার প্রান্তে দাঁড়িয়ে আছে এমন অশারবাণী শোনান তারা। 

নান্দাইল পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল খালেক জানান, স্কুলের শিক্ষার্থীরা চাইছিলো এমন কিছু করার যেন বিশ্বের বুকে বাংলাদেশকে নতুন ভাবে তুলে ধরা যায়।  সেজন্য শিক্ষার্থীরা চার হাজার মিটার রাস্তায় বৈশাখী আলপনা একে বিশ্ব রেকর্ড গড়ার উদ্যোগ নিয়েছে।  শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে ২৫ জনের এক একটি দলে ৪০টি গ্রুপে একহাজার ছাত্রী নেমে পড়েছে রেকর্ড গড়ার এ স্বপ্ন পূরণের লড়াইয়ে।  তাদের সহযোগিতায় পুরো বিদ্যালয়ের আরও নয় শত ছাত্রী কাজ করে যাচ্ছে।  এক কথায় বলতে পারেন আমার বিদ্যালয়ের ১ হাজার ৯শত ছাত্রীই জড়িত হয়েছে।  এদের কেউবা আলপনা আঁকার চক নিয়ে, কেউবা তুলি নিয়ে, কেউবা রং নিয়ে, রংয়ের বালতি হাতে নিয়ে, খাবার পানি বা খাবার স্যালাইন হাতে নিয়ে সহযোগিতার জন্য রাস্তায় কাজ করছে। 

এদিকে শিক্ষার্থীদের এ কাজে উৎসাহ যোগাতে শত শত মানুষ রাস্তার পাশে দাঁড়িয়ে উৎসাহ যোগাচ্ছে।  বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে মেয়েদের বিস্কুট, খাবার পানি দিয়ে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। 

Abu-Dhabi


21-February

keya