১২:১৭ এএম, ১৬ অক্টোবর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৫ সফর ১৪৪০


মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাক ও তাঁর স্ত্রীর দেশত্যাগে নিষেধাজ্ঞা

১২ মে ২০১৮, ০১:১০ পিএম | জাহিদ


আশরাফুল মামুন, কুয়ালালামপুর (মালয়েশিয়া) প্রতিনিধি : সম্প্রতি মালয়েশিয়ার ১৪তম জাতীয় নির্বাচনে পরাজয় বরণ করেন নাজিব রাজাক। 

পরাজয় মেনে নিয়ে পরিবার নিয়ে দেশ ছাড়তে চাচ্ছিলেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী।  কিন্তু নাজিব রাজাক ও তাঁর স্ত্রীর বিদেশে যাওয়ায় নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে মালয়েশিয়ার অভিবাসন বিভাগ। 

নাজিব রাজাকের বিরুদ্ধে দুর্নীতির গুরুতর অভিযোগ রয়েছে।  অভিযোগ অনুযায়ী, তিনি প্রধানমন্ত্রী থাকাকালে বিভিন্ন খাতে সীমাহীন দুর্নীতি করেছেন বলে দেশের অর্থনীতি ধসে পড়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। 

নাজিবের এসব দুর্নীতির সঠিক বিচার করবেন বলে অনেক আগ থেকেই প্রতিশ্রুতি দিয়ে আসছিলেন সদ্য নির্বাচনে জয়ী হয়ে প্রধানমন্ত্রীর শপথ নেওয়া ডা. মাহাথির মোহাম্মদ। 

মালয়েশিয়ার সুশীল সমাজ ও সাধারণের অভিযোগ, বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে বলেই এক প্রকার পালিয়ে বাঁচতে চাইছেন নাজিব।  তাই পরিবারসহ বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছেন নাজিব রাজাক। 

নাজিব রাজাকের দেশ ছাড়ার বিষয়টি সর্বপ্রথম জানা যায় ব্রিটিশ গনমাধ্যম ও বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে।  সেখানে অনেক মালয়েশীয় অভিযোগ করেন, নাজিব রাজাক ও তাঁর স্ত্রী রেশমা মনসুর ব্যাক্তিগত বিমানে চড়ে দেশ ছাড়ছেন। 

অভিযোগটি আমলে নেয় দেশটির অভিবাসন বিভাগ।  সঙ্গে সঙ্গে নাজিবের দেশে ছাড়ার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে তারা।  অভিবাসন বিভাগ জানিয়েছে, ‘আপাতত নাজিব রাজাক ও তাঁর স্ত্রী দেশ ছাড়তে পারছেন না। ’

অবশ্য শনিবার সকালে নাজিব রাজাক এক টুইট বার্তায় বলেন, ‘নির্বাচনে পরাজয়ের পর পরিবারের সঙ্গে কিছু সময় কাটাতে ইন্দোনেশিয়া যেতে চেয়েছিলাম।  এ সময় বিমানবন্দরে অনেকে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন।  তবে এমন সময়ে পুরো জাতি একত্রিত থাকবে বলে আমার বিশ্বাস। ’

বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনে ৯২ বছর বয়সী ডা. মাহাথির মোহাম্মাদের দল ‘জোট পাকাতান হারাপান’ ১২১টি আসন পেয়ে সরকার গঠন করে।  নাজিব রাজাকের দল ‘বারিসান ন্যাশনাল’ পায় মাত্র ৭৯টি আসন। 


keya