১২:৫৮ পিএম, ১৫ আগস্ট ২০১৮, বুধবার | | ৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯


নির্বাচন পর্যন্ত খালেদাকে কারাগারে আটকে রাখাই সরকার মূল লক্ষ্য : ফখরুল

৩০ মে ২০১৮, ০৩:৪৭ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখাই সরকার মূল লক্ষ্য বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 

বুধবার (৩০ মে) দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। 

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেন, ‘বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন ও কারামুক্তি আটকানোর জন্য সরকার বাধা সৃষ্টি করছে।  যাতে তিনি বের হতে না পারেন।  সেই ব্যবস্থা সরকার নিশ্চিত করতে চাচ্ছে।  কারণ সরকারের মূল লক্ষ্য হচ্ছে, রাজনীতি থেকে দূরে রাখা এবং আগামী ডিসেম্বরে জাতীয় সংসদ নির্বাচন পর্যন্ত বেগম জিয়াকে কারাগারে আটকে রাখা। ’

গতকাল বেগম জিয়ার পরিবারের সদস্যরা তাঁর সঙ্গে দেখা করতে গিয়েছিল জানিয়ে তিনি বলেন, ‘প্রায় ৭ থেকে ৮ দিন পরে তাদেরকে বেগম জিয়ার সঙ্গে দেখা করার সুযোগ দিয়েছে।  কারাগারে যাওয়ার পরে তারা দেখেছেন, বেগম জিয়া অত্যন্ত অসুস্থ।  আর এ অসুস্থতা এমন পর্যায়ে গিয়েছে যে, তিনি ঠিক মত হাঁটতে পারছেন না। ’

‘প্রতিদিন রাতে বেগম জিয়ার জ্বর আসে।  পরে এই জ্বরটা আর যাচ্ছে না।  আর যে রান্না হয়, সেই রান্নার মানও অনেক খারাপ হয়ে গেছে।  অপরদিকে তাঁর বাসা থেকেও কোনো খাবার দেয়া হচ্ছে না।  এমন পরিস্থিতিতে তাঁর রক্ত পরীক্ষা করা দরকার। ’

কালবিলম্ব না করে ইউনাইটেড হসপিটালে বেগম জিয়ার সুচিকিৎসার জন্য আবারও জোর দাবি জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা বারবার বলেছি, কারাগারের বাইয়ে ইউনাইটেড হসপিটালে এনে তাঁর সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করার জন্য।  এটা কারাকর্তৃপক্ষ করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছিল।  পরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সেটা প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠিয়েছিল।  কিন্তু প্রধানমন্ত্রী এবিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত দেননি।  তাকে (প্রধানমন্ত্রী) অনুরোধ করেছেন।  দেশ ও বিদেশ থেকে তার কাছে অনুরোধ এসেছে, বেগম জিয়ার জামিন ও চিকিৎসার জন্য যাতে ব্যবস্থা করা হয়।  কিন্তু এখন পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী কিছুই করেননি। ’