১১:১৭ এএম, ২০ জুন ২০১৮, বুধবার | | ৬ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

‘তিনতলা ভবন হলে মেডিকেল কলেজ, চারতলা হলে বিশ্ববিদ্যালয়’

৩০ মে ২০১৮, ১০:৪৭ পিএম | সাদি


এসএনএন২৪.কম : জাতীয় পার্টি ও সম্মিলিত জাতীয় জোটের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, উন্নয়ন নয়, দেশে এখন দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের জোয়ার চলছে। 

তিনি দাবি করেন, উত্তরাঞ্চলের কয়েকটি জেলা আরও গরীব হয়ে পড়েছে, তা দেখার যেন কেউ নেই।  মানুষের কষ্টে যেন কারো যায় আসে না। 

বুধবার বিকালে রাজধানীর রাজমনি ঈসা খাঁ হোটেলে বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট আয়োজিত ইফতার মাহফিলে এরশাদ এসব কথা বলেন। 

এরশাদ বলেন, দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা এখন ধ্বংস হয়ে গেছে।  তিনতলা একটি ভবন হলেই মেডিকেল কলেজ করা যায়।  আর চার রুমের একটি ঘর হলেই বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব। 

তিনি বলেন, মাদক নিয়ন্ত্রণে বর্তমান সরকার পুরোপুরিই ব্যর্থ হয়ে এখন মাদকবিরোধী অভিযান চালাচ্ছে।  মাদকবিরোধী অভিযানে কাউন্সিলর ইকরাম হত্যার সমালোচনাও করেন সাবেক এই রাষ্ট্রপতি। 

এ সময় আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগেই সব ইসলামী দলকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ইসলামী দলগুলো ঐক্যবদ্ধভাবে নির্বাচন করলে বর্তমান সরকারকে পরাজিত করে একটি আধুনিক ও মানবিক রাষ্ট্র গঠন করা সম্ভব হবে। 

বিশ্ব মুসলিমদের উপর নির্যাতনে দুঃখ প্রকাশ করে এরশাদ বলেন, ফিলিস্তিনসহ বিভিন্ন দেশে নির্যাতন চলছে।  ফিলিস্তিনিদের পাখির মতো গুলি করে হত্যা করা হচ্ছে, মুসলমানরা যেন মানুষই নয়। 

দুঃখ প্রকাশ করে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বলেন, মুসলমানরা ঐক্যবদ্ধ নয়, তাদের মাঝে ভ্রাতৃত্ববোধ নেই।  মুসলিম বিশ্ব আজ দ্বিধাবিভক্ত। 

আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের চেয়ারম্যান আল্লামা এমএ মান্নান, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু, সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের মহাসচিব এমএ মতিন, প্রেসিডিয়াম সদস্য আল্লামা আবু সুফিয়ান, আল্লামা হারুন অর রশিদ, যুগ্ম-মহাসচিব স.উ.এ আবদুস সামাদ চৌধুরী। 

ইফতার মাহফিলে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু, সুনীল শুভরায়, এসএম ফয়সল চিশতী, মীর আবদুস সবুর আসুদ, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, মো. শফিকুল ইসলাম সেন্টু, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা রেজাউল ইসলাম ভূইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইকবাল হোসেন রাজু, জহিরুল ইসলাম জহির, আরিফুর রহমান খান, সরদার শাহজাহান, যুগ্ম-মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, শফিকুল ইসলাম শফিক, জহিরুল আলম রুবেল, সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মো. ইসহাক ভূঁইয়া, ফখরুল আহসান শাহাজাদা, এমএ রাজ্জাক খান, মো. গোলাম মোস্তফা, কেন্দ্রীয় নেতা সুজন দে, অ্যাডভোকেট মো. বায়েজিদ, শাহ-ই-আজম মুকুল, মাহবুবুর রহমান খসরু, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের কেন্দ্রীয় নেতা অধ্যাপক এমএ মোমেন, সৈয়দ ফকির মো. মোসলেম আহমেদ, সৈয়দ মোজাফফর আহমেদ, মো. ইসলাম উদ্দিন দুলাল, এমএ মতিন, আল্লামা আবদুল হাকিম, অধ্যক্ষ আল্লামা হেলাল উদ্দিন প্রমুখ।