৮:৩৯ পিএম, ২০ আগস্ট ২০১৮, সোমবার | | ৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯


শরীয়তপুরে ছাত্রলীগ নেতা এরশাদের বাড়ি-ঘরে হামলা-ভাঙচুর, আহত-২

১০ জুন ২০১৮, ১২:৩৪ পিএম | জাহিদ


রোমান আহমেদ, শরীয়তপুর প্রতিনিধি : শরীয়তপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সদস্য সচিব ও সদর উপজেলার ডোসমার ইউনিয়নের কোয়ারপুর ঢালী পরিবারে সদস্য আসাদুজ্জামান এরশাদ (ঢালী)’র বাড়ি-ঘরে বাড়ি-ঘরে হামলা-ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। 

এতে বাড়ি-ঘরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সহ ছাত্রলীগ নেতা এরশাদ ও তার খালাতো ভাই অভি আহত হয়েছে।  শুক্রবার রাতে ডোমসার ইউনিয়নের কোয়ারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।  গুরুতর আহত অবস্থায় অভিকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং এরশাদকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।  এ ঘটনায়  ছাত্রলীগ নেতা এরশাদ পালং থানায় একটি অভিযোগ করেছে। 

জানা যায়, শরীয়তপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সদস্য সচিব ও সদর উপজেলার ডোসমার ইউনিয়নের কোয়ারপুর ঢালী পরিবারে সদস্য আসাদুজ্জামান এরশাদ (ঢালী)’র বাড়ি-ঘরে বাড়ি-ঘরে হামলা-ভাঙচুর করেছে প্রতিপক্ষরা।  শুক্রবার উঠানে ধান রোদ দেওয়াকে কেন্দ্র করে ঢালী পরিবারের অন্য সদস্য আবুল কালাম ঢালীর স্ত্রী সুইটি বেগমের সাথে এরশাদের কথাকাটি হয়। 

এ কথা কাটাকাটির জের ধরে শক্রবার রাতে আবুল কালাম ঢালী ও সনেট তাদের সহযোগী নিয়ে আসাদুজ্জামান এরশাদ (ঢালী)’র বাড়ি-ঘরে বাড়ি-ঘরে হামলা-ভাঙচুর করে।  এতে বাড়ি-ঘরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সহ ছাত্রলীগ নেতা এরশাদ ও তার খালাতো ভাই অভি আহত হয়। 

গুরুতর আহত অবস্থায় অভিকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে এবং এরশাদকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।  এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতা এরশাদ পালং থানায় একটি অভিযোগ করেছে। 

এ ব্যাপারে শরীয়তপুর সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সদস্য সচিব আসাদুজ্জামান এরশাদ বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে  কেন্দ্র করে কাটাকাটির জের ধরে শক্রবার রাতে আবুল কালাম ঢালী ও সনেট তাদের সহযোগী নিয়ে আমার বাড়ি-ঘরে বাড়ি-ঘরে হামলা-ভাঙচুর করে।  এতে বাড়ি-ঘরে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। 

এসময় আমিও আহত হই এবং আমার খালাতো ভাই অভি গুরুতর আহত হয়।  তাকে শরীয়তপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  এ ঘটনায়  ছাত্রলীগ নেতা এরশাদ পালং থানায় একটি অভিযোগ করেছি।  আমি এর সুষ্ঠ তদন্ত সাপেক্ষে বিচার দাবি করছি। 

পালং থানার ওসি মো. মনিরুজ্জামান বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।  তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।