৮:২৮ পিএম, ২৪ জুন ২০১৮, রোববার | | ১০ শাওয়াল ১৪৩৯

South Asian College

ডিমলায় ৬৭ হাজার ১’শ ৮৮টি পরিবারে ভিজিএফ চাল বিতরণ

১৪ জুন ২০১৮, ০৫:৩৬ পিএম | সাদি


হামিদা আক্তার, নীলফামারী প্রতিনিধি : নীলফামারীর ডিমলায় দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রনালয়ের সহায়তায় স্থানীয় প্রশাসনের আয়োজনে এবারে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দুঃস্থ,অসহায়, দরিদ্র ও হত দরিদ্রদের মাঝে উপজেলার ১০টি ইউনিয়নে ৬৭ হাজার ১’শ ৮৮টি পরিবারের মাঝে ১০ কেজী করে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হচ্ছে। 

“শেখ হাসিনার বাংলাদেশ,ক্ষুধা হবে নিরুদ্দেশ” শ্লোগানে মঙ্গলবার থেকে শুরু হয়েছে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ কার্যক্রম।  বুধবার উপজেলার ৯ নম্বর টপাখড়িবাড়ী ইউনিয়নে ট্যাক অফিসার উপজেলা বিআরডিবি কর্মকর্তা রাজিউর কবীর’র উপস্থিততে ৪ হাজার ৩’শ ৩৪টি পরিবারের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে ভিজিএফ’র চাল। 

তিস্তার ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত গাউইবাঁধসহ বিভিন্ন জায়গায় আশ্রয় নেয়া ছিন্নমূল পরিবার এবং দুর্গোম চরে বসবাসকারী মানুষজন ঈদের পূর্বেই ভিজিএফ’র এই ১০ কেজী চাল পেয়ে খুবই খুশি।  চাউল পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দারা জানালেন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছি আমরা। 

এমন সময় ভিজিএফ’র চাল পেয়ে বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে আনন্দ প্রকাশ করেছে তারা।  শিশু হাসিব জানায় এই চাউল পেয়ে আমি খুবই খুশি।   টেপাখড়িবাড়ী ইউপি’র চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সাহিন বলেন, এবারে আমি এই ইউনিয়নের জন্য ৪ হাজার ৩’শ ৩৪টি পরিবারের জন্য ভিজিএফ’র চাল পেয়েছি।  এই ভিজিএফ’র চাল বিতরণের ফলে আমার ইউনিয়বাসীর মধ্যে যেন আসন্ন ঈদের আনন্দ বিরাজ করছে।  আশা করি ঈদের দিন প্রত্যেকেই আনন্দ উপভোগ করবে। 

আমার ইউনিয়নে বিশেষ করে ঈদের দিনে কেহই থাকবে না অনাহারে-অর্ধাহারে।  উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা কার্যালয়ের তথ্যমতে এবারে উপজেলার ডিমলা সদওে ইউনিয়নে ১০৮০০, নাউতারায় ৮১৪১, বালাপাড়ায় ৭৯৩৪, খাঁলিশাচাপানীতে ৭৯৯০, ঝুনাগাছ চাঁপানীতে ৮২২০, গয়াবাড়ীতে ৮৪৮৮, খগাখড়িবাড়ীতে ৭৪৪৮, পূর্ব ছাতনাই-এ ৩৮৪৮ এবং পশ্চিম ছাতনাই ইউনিয়নে ৫৪০৫টি পরিবারের মাঝে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হচ্ছে।