৪:৪৪ পিএম, ১৮ জুলাই ২০১৮, বুধবার | | ৫ জ্বিলকদ ১৪৩৯


চট্টগ্রাম বাকুলিয়ায় অভিযান চালিয়ে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার-৭

২৮ জুন ২০১৮, ১১:০৩ এএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : বর্তমানে আমাদের দেশের যুব সমাজের অধঃপতনের অন্যতম কারণ হচ্ছে মাদকাসক্তি।  মাদকাসক্তির ভয়াল থাবা প্রতিনিয়ত আমাদের সমাজকে ধ্বংস করে ফেলছে। 

দেশব্যাপী মাদকদ্রব্যের বিস্তাররোধ এবং দেশের যুব সমাজকে মাদকের ভয়াল থাবা থেকে রক্ষার জন্য প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে র‌্যাবের মাদক বিরোধী অভিযান দেশের সর্বস্তরের জনসাধারণ কর্তৃক বিশেষভাবে প্রশংসিত হয়েছে। 

এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এ বৎসর ০১ জানুয়ারি ২০১৭ হতে অদ্য ২৮ জুন ২০১৮ ইং তারিখ পর্যন্ত সর্বমোট ৪৪৫ টি বিভিন্ন ধরনের অস্ত্রসহ মোট ৫৪ টি ম্যাগাজিন এবং ৫,৭৪৬ রাউন্ড বিভিন্ন ধরনের গুলি/কার্তুজ উদ্ধারের পাশাপাশি ৮৬ লক্ষ ৭৯ হাজার ৯৩ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৪৬ হাজার ৯৮৫ বোতল ফেন্সিডিল, ৩,৪৫৫ বোতল বিদেশী মদ ও বিয়ার, ০৬ লক্ষ ৯৯ হাজার ৭৯৫ লিটার দেশীয় তৈরী মদ, ৯৩৮ কেজি ৮১৫ গ্রাম গাঁজা, ৪১২ গ্রাম হেরোইন এবং ৭ কেজি ৪২৫ গ্রাম আফিম উদ্ধার করেছে। 

চট্টগ্রাম গোপন সংবাদের মাধ্যমে জানতে পারে যে, চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকুলিয়া থানাধীন তক্তারপুল এলাকায় আব্দুল করিম রোডস্থ সেলিম সওদাগরের বাড়ির সামনে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। 

উক্ত তথ্যের ভিত্তিতে ২৭ জুন ২০১৮ ইং তারিখ ২১৩৫ ঘটিকার সময় র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা দৌড়ে পালানোর চেষ্টাকালে আসামী ১।  মোঃ তানভীর ইসলাম (২৫), পিতা- মোঃ ফখরুল ইসলাম, গ্রাম- বাড়ি নং ২৬,ওয়ার্ড নং ১৬ (গনি বেকারী মোড়), থানা- চকবাজার, জেলা- চট্টগ্রাম, ২।  মোঃ রাসেল (২৪), পিতা- মৃত ইকবাল হোসেন, গ্রাম- পালং স্কুল (নুরু কোত্তাল চেয়ারম্যানের বাড়ি), থানা- শরিয়তপুর, জেলা- মাদারীপুর, এ/পি- ০৫ নং ব্রীজ আবাসিক এলাকা (আইল্ল্যার কলোনী), থানা- বাকুলিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম, ৩।  মোঃ জামাল (২০), পিতা- মৃত সৈয়দ ফরাজী, গ্রাম- দক্ষিণ ছনরা (বানু হোসেনের বাড়ি), থানা- পটিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম, এ/পি- তক্তারপুল (আব্দুর রহমানের বস্তার দোকান ), থানা- বাকুলিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম,

৪।  মোঃ নাঈম (২২), পিতা- মৃত হানিফ, গ্রাম- দিলারপুর, থানা- মুরাদনগর, জেলা- কুমিল্লা, এ/পি- পশ্চিম পাড়া (নানা মিয়া কলোনী), থানা- বাকুলিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম, ৫।  মোঃ হৃদয় মিয়া (৩০), পিতা- মৃত হাশেম মিয়া, গ্রাম- মুক্তিনগর (আঃ জব্বারের বাড়ি), থানা- হোমনা, জেলা- কুমিল্লা, এ/পি- বউ বাজার হাফিজিয়া রোড (মুরাদ কোম্পানীর কলোনী), ওয়ার্ড নং ১৯, থানা- বাকুলিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম, ৬।  মোঃ শিপন (৩২), পিতা- মৃত আব্দুল হক, গ্রাম- গোপীনাথপুর (মোল্লাবাড়ি), থানা- কসবা, জেলা- বি-বাড়িয়া, এ/পি- রসুলবাগ (সিরাজ কোম্পানীর কলোনী), থানা- বাকুলিয়া, জেলা- চট্টগ্রাম এবং ৭।  মোঃ জহির (২৩), পিতা- মোঃ মফিজ মিয়া, গ্রাম- আন্ডারচর (দুদা মিয়ার বাড়ি), থানা- নোয়াখালী সদর, জেলা- নোয়াখালী, এ/পি- তক্তারপুল (সোহেলের রিক্সার গ্যারেজ), থানা-বাকুলিয়া, জেলা- চট্টগ্রামদের’কে আটক করে।  পরবর্তীতে উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে আটককৃত আসামীদের দেহ তল­াশী করে ২০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ২১০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধারসহ আসামীদের’কে গ্রেফতার করা হয়।  উদ্ধারকৃত মাদকের আনুমানিক মূল্য ১ লক্ষ ২ হাজার ১০০ টাকা। 

গ্রেফতারকৃত আসামী এবং উদ্ধারকৃত মাদক সংক্রান্তে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নিমিত্তে ১৯৯০ সনের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইন (সংশোধনী/২০০৪) এর ১৯(১) টেবিলের ৭(ক)/৯(খ) ধারা মোতাবেক চট্টগ্রাম মহানগরীর বাকুলিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। 



keya