৭:৩৭ এএম, ১৯ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৬ জ্বিলকদ ১৪৩৯


সরিষাবাড়ীতে কবি কায়কোবাদ স্মৃতি বিজড়িত পিংনা পোষ্ট অফিসের বেহাল দশা

২৯ জুন ২০১৮, ০৭:০১ পিএম | সাদি


তানভীর আহমদে হীরা, জামালপুর প্রতনিধি : জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার পিংনা ইউনিয়নের কবি কায়কোবাদের স্মৃতি বিজরিত পিংনা পোষ্ট অফিসটি দির্ঘদিন ধরে নানা সমস্যায় জর্জরীত ও বেহাল দশার কারনে এখন তা ব্যবহারের অনুপযোগি হয়ে পড়েছে। 

সারেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ২০.শতাংশ জমির উপর প্রতিষ্ঠিত ৪ কক্ষ বিশিষ্ট একতলা ভবনটি নির্মিত হয়েছিলো ১৯৭৩-৭৪ সালে।  দীর্ঘ ৪৪ বছরেও এই পুরনো পোষ্ট অফিসটি উন্নয়নের ছোঁয়া থেকে আজও বঞ্চিত।  পুরনো এই ভবনটির বিভিন্ন স্থানে ফাটল, দেয়াল ও  ছাদের প্ল্যাষ্টার ভাঙ্গা, ছাদে বেরিয়ে আছে লোহার রড। 

যে কোন সময় ভেঙ্গে পড়ে বড় ধরনের দূর্ঘটনার আশংকা করছেন কর্মরত পোষ্ট মাষ্টার।  তাই জরুরী ভিত্তিতে নতুন ভবন নির্মাণের প্রয়োজন।  এখানে কর্মরত রয়েছে ১জন পোষ্ট মাষ্টার , ১জন, পোষ্ট ম্যান ও ১জন মেইল পিয়ন । 

এই পিংনা পোষ্ট অফিসটিতে একসময় কবি কায়কোবাদ দির্ঘদিন পোষ্ট মাষ্টার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।  এখানে অবস্থিত রসপাল জামে মসজিদের পুকুর ঘাটে বসে তার কাল জয়ী ‘আযান ‘কবিতা টি রচনা করেন।  এ ছাড়াও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই পোষ্ট অফিসে বসে মধাহ্ন ভোজ করেছিলেন। 

এ পোষ্ট অফিসের অধিনে ৮টি শাখা পোষ্ট অফিস রয়েছে।  এখানে প্রতিমাসে লেন- দেনের পরিমান প্রায় ১ কোটি টাকা ।  তবুও অদৃশ্য কারনে গুরুত্বপূর্ন এ পোষ্ট অফিসটির অবস্থা এখনও লাজুক। 

পোষ্ট অফিসটির সাথে সংযুক্ত তিন কক্ষ বিশিষ্ট পোষ্ট মাষ্টারের বাস ভবন দীর্ঘদিন যাবৎ মেরামত, সংস্কার না করায় বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।  সামান্য বৃষ্টির পানিতে অফিসের প্রয়োজনীয় কাগজ পত্র ভিজে নষ্ট হয়ে যায়।  ভবনটির দরজা- জানালা নেই বললেই চলে।  ভবন নির্মানের সময় নির্মিত টয়লেট বহু পূর্বেই ভেঙ্গে নষ্ট হয়ে গেছে। 


এ ব্যাপরে পিংনা ইউপি চেয়ারম্যান খন্দকার মোতাহার হোসেন জয় বলেন, জনগুরুত্বপূর্ন পিংনা সাব ডাকঘরটি অত্র এলাকার খুবই গুরুত্ববহন করে।  কাজেই গুরুত্ব বিবেচনা করে প্রথম শ্রেনীর ডাকঘরে রুপান্তরীত করাসহ নতুন ভবন নির্মানের জন্য আমি ও আমার অত্র ইউনিয়নের জনগন সংশ্লিষ্ট বিভাগের উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে অনুরোধ করছি। 

এ ব্যাপারে পিংনা পোষ্ট মাষ্টার আব্দুল জুব্বার বলেন, নিরাপত্তার জন্য সীমানা প্রাচীর সহ ভবনটির মেরামত, সংস্কার খুবই  প্রয়োজন।  আমরা সব সময় আতঙ্কের মধ্যে থাকি কারন যে কোন সময় ভবনটি আমাদের উপর ভেঙ্গে পড়তে পারে।