৬:৪৫ পিএম, ১৮ জুলাই ২০১৮, বুধবার | | ৫ জ্বিলকদ ১৪৩৯


লামা-আলীকদমে শান্তি ও সম্প্রীতি রক্ষায় কাজ করছে সেনাবাহিনী

০২ জুলাই ২০১৮, ০৫:১৫ পিএম | সাদি


এম.বশিরুল আলম, লামা প্রতিনিধি : বাংলাদেশ সেনা বাহিনী আলীকদম জোনের সার্বিক উন্নয়ন কর্মকান্ডের ফলে পাল্টে দিয়েছে লামা-আলীকদমের চিত্র।  অনেক অনিয়মের ভিত্তিমূলেও আশানুরূপ উন্নতি হয়েছে বলে দাবী করছেন এলাকাবাসী। 

বাংলাদেশ সেনা বাহিনী আলীকদম জোনের তত্তাবধানে লামা-আলীকদমের লক্ষাধিক বাঙ্গালী ও আদিবাসী জনগোষ্ঠীর কল্যাণ সাধিত হচ্ছে।  প্রত্যন্ত পাহাড়ী এলাকা থেকে অস্ত্র ও সামরিক সরঞ্জাম উদ্ধার, সন্ত্রাস-চাঁদাবাজিসহ নানা অপরাধমূলক কর্মকান্ড সমুলে নির্মূল, অবৈধ কাঠ, বাঁশ পাচার রোধ, কোটি কোটি টাকার কাঠ আটকে আলীকদম জোনের সেনা কার্যক্রম ইতোমধ্যে অনেক প্রশংসা অর্জন করেছে। 

তাছাড়া পাহাড় খুঁড়ে পাথর আহরণ বন্ধ, পাহাড় কাটা বন্ধসহ তামাক কিউরিং-এ পরিবেশ বান্ধব কার্যক্রমসহ সরকারী-বেসরকারী সকল প্রশাসনকে সহযোগিতা করে যাচ্ছে সেনাবাহিনী।  এলাকায় সড়ক নির্মাণ, ব্রীজ-কালভার্ট স্থাপনসহ দরিদ্র জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উনয়নে সেনাবাহিনী নগদ অনুদান প্রদানের পাশাপাশি আদা-হলুদ চাষসহ যাবতীয় কৃষি কাজের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিয়ে আসছে। 

শিক্ষা-সংস্কৃতিমূলক কার্যক্রমে সহায়তা, চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম, উদ্যান উন্নয়ন, বৃক্ষরোপন, এতিমখানা-অনাথালয়ে আর্থিক সহায়তা, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনে অনুদান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্মাণ, মৈত্রী কার্যক্রমের আওতায় প্রেসক্লাব নির্মাণ, বিভিন্ন স্কুল কলেজ, মাদ্রাসা, এতিমখানার শিক্ষকদের বেতন ভাতা প্রদান, পাহাড়ী দুর্গম পল্লীগুলোতে ন্যায্যমূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যসামগ্রী প্রদান করে যাচ্ছে সেনা বাহিনী। 

তাছাড়া প্রত্যন্ত এলাকার রোগাক্রান্ত উপজাতি ও অউপজাতিদেরকে উন্নত চিকিৎসা প্রদানে দ্রুত যোগাযোগে সহায়তা দিয়ে আসছে সেনা বাহিনী।  বিগত দিনে আলীকদম জোনের সহায়তায় লামা বন বিভাগ কোটি কোটি টাকা মূল্যের বনজ সম্পদ অবৈধ পাচারকারীদের কবল থেকে উদ্ধার করে রাজস্ব বৃদ্ধিতে অবদান রেখেছে। 

এছাড়া লামা উপজেলার দূর্গম এলাকাগুলোতে নিরাপত্তায় আলীকদম জোন সচেষ্ট রয়েছেন।  লামার গয়ালমারা সন্ত্রাসী এলাকায় বিভিন্ন অভিযান পরিচালনা করে সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের চাঁদাবাজিসহ পরিবেশ বিপন্নকারী পাথর আগ্রাসীদের অপতৎপরতা বন্ধ করেন।  এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় আলীকদম জোন তাদের নিয়মিত অপারেশনাল কর্মকান্ড’র পাশাপাশি সিভিল প্রশানকে সর্বাত্বক সহায়তা করে চলছেন।  এর ফলে জনগণের জানমাল হেফাজত হচ্ছে, রক্ষা পাচ্ছে সরকারি সম্পদ। 

এছাড়া যে কোন ধরণের দুর্যোগকালীন সময়ে পরম বন্ধু হয়ে স্থানীয়দের পাশে এসে দাড়ায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর আলীকদম জোন।