৭:৪৩ এএম, ১৯ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৬ জ্বিলকদ ১৪৩৯


খালিয়াজুরীতে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষকসহ গ্রেফতার-২

০৩ জুলাই ২০১৮, ১১:৩০ এএম | জাহিদ


জাহাঙ্গীর আলম, নেত্রকোনা প্রতিনিধি :নেত্রকোনা জেলার খালিয়াজুরী উপজেলার  বোয়ালী দাখিল মাদ্রাসার নবম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগে দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে, খালিয়াজুরী থানা পুলিশ।  সোমবার বোয়ালী এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে থানা পুলিশ। 

গ্রেফতার হওয়া দুইজন ব্যক্তি হচ্ছে নূরপুর বোয়ালী দাখিল মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি গোলাম রসুল ও ওই মাদ্রাসার শিক্ষক প্রতিনিধি আবদুল মোনায়েম। 

মামলার অভিযোগে জানা গেছে, জেলার খালিয়াজুরী উপজেলার মেন্দিপুর ইউনিয়নের নূরপুর রোয়ালী দাখিল মাদ্রসার নবম শ্রেণির  ছাত্রীর সাথে নূরপুর বোয়ালী পশ্চিমপাড়া গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে ঝিমি মিয়া (২৫) প্রায় এক বছর ধরে প্রেম প্রেম খেলা করে আসছিল। 

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কথিত প্রেমিক ঝিমি মিয়া ২৬ জুন পার্শ্ববর্তী মদন থানার গোবিন্দশ্রী  ট্রলার ঘাট থেকে ট্রলারে করে হাওরে নিয়ে ধর্ষণ করে।  পরে মেয়ের নিজ গ্রামে  মেয়েটিকে রেখে পালিয়ে যায় ধর্ষণ কারি জিমি মিয়া। 

এ ঘটনায় সহযোগিতা করার অভিযোগে মেন্দিপুর ইউপি চেয়ারম্যান লোকমান হেকিম, নূরপুর বোয়ালী দাখিল মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি গোলাম রসুল, ওই মাদ্রাসার শিক্ষক প্রতিনিধি আবদুল মোনায়েম, আবদুল কুদ্দুসসহ আটজনের বিরুদ্ধে ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে রোববার (১) জুলাই মদন থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। 

সোমবার দুপুরে মামলার দুই আসামি গোলাম রসুল ও আবদুল মোনায়েমকে বোয়ালী এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে  খালিয়াজুরি থানার পুলিশ। 

মদন থানার ওসি শওকত আলী মামলা দায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আসামি গ্রেফতারের বিষয়টি আমার জানা নেই বলে জানান।  খালিয়াজুরী থানার ওসি হযরত আলী জানান, দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  তাদের মদন থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হবে।