৮:০০ এএম, ১৯ জুলাই ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৬ জ্বিলকদ ১৪৩৯


চাচাতো ভাই দ্বারা ধর্ষণ, ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ৭ম শ্রেণির মাদ্রাসা ছাত্রী: ধর্ষক আটক

১০ জুলাই ২০১৮, ০৮:৩৩ এএম | জাহিদ


জাহিদ হোসাইন, সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : প্রতিবেশী  চাচাতো ভাই দ্বারা ধর্ষণের শিকার হয়ে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েছে ৭ম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রী।  এ ঘটনায় ধর্ষক জিয়ারুল ইসলামকে আটক করেছে পুলিশ। 

সাতক্ষীরা সদরের বৈকারী ইউনিয়নের  কাথন্ডা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

ভিকটিম কাথন্ডা গ্রামের এক প্রতিবন্ধীর মেয়ে ও  কাথন্ডা অামিনিয়া অালিম মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণির ছাত্রী। 

ধর্ষক জিয়ারুল ইসলাম (২৮) কাথন্ডা গ্রামের আব্দুল গফফারের ছেলে। 

ভিকটিম জানায়, আমি প্রায়ই জিয়ারুলদের বাড়িতে যেতাম।  একপর্যায়ে সে আমাকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়।  আমি রাজি না হওয়ায় হঠাৎ একদিন তাদের বাড়িতে লোকজন না থাকার সুযোগে আমাকে ধর্ষণ করে।  এরপর আমি যাতে কাউকে কিছু না বলি সেজন্য আমাকে বিভিন্ন রকম ভয়ভীতি দেখায়।  এরপর আমি গর্ভবর্তী হয়ে পড়লে গর্ভের বাচ্চা নষ্ট করার জন্য আমাকে বিভিন্নভাবে চাপ প্রয়োগ করে। 

ভিকটিমের বাবা বলেন, আমার বাচ্চা মেয়েটির সর্বনাশকারী জিয়ারুল ও তার সহযোগীদের উপযুক্ত বিচার চাই। 

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সাতক্ষীরা সদর থানার এস আই শেখ মোঃ মিরাজ আহমেদ বলেন, এ ব্যাপারে সাতক্ষীরা থানায় একটি মামলা হয়েছে।  মামলার প্রধান আসামী জিয়ারুলকে আটক করে আদালতে প্রেরণ করলে আদালতে সে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে। 

এছাড়া মামলার অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।