১২:২৫ এএম, ২১ জুলাই ২০১৮, শনিবার | | ৮ জ্বিলকদ ১৪৩৯


বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা খন্দকার মুক্তাদীকে সিলেটে ধাওয়া

১০ জুলাই ২০১৮, ০৯:৩০ এএম | জাহিদ


হাবিব সরোয়ার আজাদ, সিলেট প্রতিনিধি : বিএনপির চেয়ারপারসন  বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা খন্দকার আবদুল মুক্তাদিরকে ধাওয়া দিয়েছে সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা। 

সোমবার বিকেলে নগরীর মেন্দিবাগ পয়েন্টে এ ঘটনা ঘটে।  ধাওয়া খেয়ে খন্দকার মুক্তাদির সিলেট নগরীর রোজভিউ হোটেলে আশ্রয় নিলেও ওই সময় তার সঙ্গে থাকা বিএনপি নেতা আ ফ ম কামাল ও সাবেক ছাত্রদল নেতা সাহেদকে লাঞ্ছিত করেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোমবার বিকেলে  সিলেট মহানগরীরর মেন্দিবাগের রোজভিউ হোটেলে  সিসিক নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রেস ব্রিফিংয়ের আয়োজন করেছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী। 

এতে যোগ দিতে বিকেলে রোজভিউতে পৌঁছেন আমির খসরু।  তাকে স্বাগত জানিয়ে ছাত্রদলের কমিটি প্রত্যাখ্যানকারীরা বিক্ষোভ করেন।  এ সময় সংবাদ সম্মেলনে যোগ দিতে যান খন্দকার মুক্তাদির।  ঘটনাস্থলে পৌঁছামাত্রই তাকে ধাওয়া দেন ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা। 

এ সময় জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের বর্তমান কমিটিকে ‘কালো টাকার কমিটি’ আখ্যায়িত করে স্লোগান দেন নেতাকর্মীরা।  তারা বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা খন্দকার আবদুল মুক্তাদিরের বিরুদ্ধেও স্লোগান দেন। 

এক পর্যায়ে সাবেক ছাত্রদল নেতা সাহেদ আহমদ ও আ ফ ম কামালকে লাঞ্ছিত করলে তারা দুইজন মারাত্মক আহত হন।  ঘটনার একপর্যায়ে রোজভিউ হোটেলেও হামলা চালান বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মীরা।  পরবর্তীতে সিলেট কোতয়ারী থানার এসি ও শাহপরান থানা পুলিশের ওসি সহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। 

এ ঘটনার পর বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরীর সংবাদ সম্মেলন রোজভিউ হোটেল থেকে আরিফুল হক চৌধুরীর বাসায় স্থানান্তর করা হয়। 

প্রসঙ্গত, আসন্ন সিলেট সিটি কর্পোরেশন (সিসিক) নির্বাচনে দলীয় প্রার্থী আরিফুল হক চৌধুরীর সমর্থনে প্রচারণা চালাতে ও নির্বাচনের সার্বিক দিক-পর্যবেক্ষণ করতে সিলেটে যান আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী সহ কেন্দ্রীয় নেতারা। 



keya