১১:৪৮ পিএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | | ১০ মুহররম ১৪৪০


শরণখোলায় ম্যানেজিং কমিটি গঠনে জালিয়াতির অভিযোগ

১২ জুলাই ২০১৮, ১২:১২ পিএম | জাহিদ


এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট প্রতিনিধি : বাগেরহাটে শরণখোলায় এক মাদ্রাসার সুপার ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির যোগসাযসে নতুন কমিটি গঠনের নানা জালিয়াতির আশ্রয় নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

বেসরকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনার নীতিমালা লঙ্ঘন সহ অভিভাবকদের মতামত উপেক্ষা করে সভাপতি ও সুপার  তাদের খেয়াল খুশিমত ভোটার তালিকায় শতাধিক ভুয়া ভোটারের নাম অর্ন্তভুক্ত করেছেন। 

যার মধ্যে ৮/১০ বছর পূর্বে মারা যাওয়া ২/৩ ব্যক্তির নাম চুড়ান্ত ভোটার তালিকায় অভিভাবক হিসাবে দেখানো হয়েছে।  এছাড়াও বহু অভিযোগ রয়েছে উপজেলার ধানসাগর রাজাপুর ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসাটির কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। 

নানা অনিয়মের প্রতিবাদ জানিয়ে উক্ত মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণির শিক্ষার্থী হাফিজুল ফরাজীর পিতা (অভিভাবক) মোঃ নাসির ফরাজী নির্বাচন বন্ধের দাবীতে চলতি মাসের ৮ জুলাই আদালতে দেওয়ানী ৫০/২০১৮ নং একটি মামলার দায়ের করেছেন। 

এতে মাদ্রাসার সভাপতি প্রভাষক মোঃ কামাল হোসেন তালুকদার, মাদ্রাসার সুপার আব্দুল ওহাব, উপজেলা মাধ্যমিক ও জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাসহ চার জনকে বিবাদী করা হয়েছে। 

লিখিত বক্তব্যে নাসির ফরাজী বলেন, মাদ্রাসার সভাপতি ও সুপারের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ তুলে ষড়যন্ত্রমুলক ম্যানেজিং কমিটির নির্বাচন বন্ধের পাশাপাশি কোন মহল যাতে পকেট কমিটি করে প্রতিষ্ঠানটির উন্নয়ন বাধাগ্রস্থ করতে না পারে সেজন্য স্থগিতের আদেশ দাবী করেন তিনি। 

তবে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি প্রভাষক মোঃ কামাল হোসেন তালুকদার বলেন, যে ব্যক্তি বাদী হয়ে নির্বাচন বন্ধের জন্য মামলা করেছেন তিনিও বর্তমান কমিটির একজন সক্রিয় সদস্য।  কারণ সকল সদস্যদের উপস্থিতিতে মাদ্রাসার এক সভায় চুড়ান্ত ভোটার তালিকার অনুমোদন দেয়া হয়েছে। 

অন্যদিকে, মাদ্রাসার সুপার আব্দুল ওহাব বলেন, গ্রাম পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সকল নিয়মনীতি পালন করা অনেক ক্ষেত্রে সম্ভব হয়না।  তবে মামলা ছাড়া বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা ভালো হতো। 

এ ব্যাপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো নুরুজ্জামান খান জানান, প্রতিষ্ঠান পরিচালনার বিধি অনুসারে সকল নিয়মনীতি পালনের জন্য সংশ্লিষ্ট মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেয়া হয়েছিল। 

কিন্তু তার কোন ব্যক্তয় ঘটে থাকলে খতিয়ে দেখে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।  এছাড়া আদালতের নির্দেশে ইতোমধ্যে ওই মাদ্রাসার ম্যানেজিং কমিটি নির্বাচনের সকল কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। 


keya