১০:১০ এএম, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, শুক্রবার | | ১০ মুহররম ১৪৪০


বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা করে নিল বাংলাদেশের মেয়েরা

১৩ জুলাই ২০১৮, ০৮:২৫ এএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে বৃহস্পতিবার স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হয়েছিল বাংলাদেশের মেয়েরা।  সেমি ফাইনাল ম্যাচটিতে স্কটল্যান্ডকে ৪৯ রানে হারিয়েছে লাল-সবুজের দল।  ফলে টুর্নামেন্টের ফাইনালের উঠার সঙ্গে নিশ্চিত হয়েছে মূলপর্বও। 

টানা তৃতীয়বারের মতো টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা করে নিল বাংলাদেশ।  নভেম্বরে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অনুষ্ঠিত হবে মূলপর্ব। 

নেদারল্যান্ডসের আমস্টেলভিনে অনুষ্ঠিত ম্যাচে টস হেরে আগে ব্যাটিং পায় বাংলাদেশের মেয়েরা।  নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ১২৫ রান সংগ্রহ করে সালমা খাতুনের দল।  জবাবে ৭ উইকেটে ৭৬ রানে থেমেছে স্কটল্যান্ড মেয়েদের ইনিংস। 

প্রথম সেমি ফাইনালে পাপুয়া নিউগিনিকে হারিয়ে ফাইনালে উঠে আয়ারল্যান্ড।  একই সঙ্গে নিশ্চিত করে বিশ্বকাপের মূলপর্ব।  শনিবার বাংলাদেশ ও আয়ারল্যান্ড ফাইনালে মুখোমুখি হবে।  আগেরবার আইরিশদের কাছে হেরেই শিরোপা জেতা হয়নি।  এবার প্রথম হয়েই বিশ্বকাপে পা দেওয়ার পালা বাংলাদেশের মেয়েদের। 

আগে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশের শুরুটা ছিল দারুণ।  শামীমা সুলতানা ও আয়েশা রহমানের ওপেনিং জুটিতে আসে ৫১ রান।  তবে ব্যক্তিগত ২২ রানে শামীমা রান আউটের শিকার হয়ে সাজঘরে ফিরে গেলে কিছুটা ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে টাইগ্রেসরা।  দলীয় ৫২ রানের মাথায় ফিরে যান অন্য ওপেনার আয়েশাও (২০)।  তিন নম্বরে নামা ফারজানা হক ব্যক্তিগত ২ রান করে আউট হন। 

তবে সেই এই ধাক্কা সামাল দেন নিগার সুলতানা।  তার ব্যাটিং দৃঢ়তায় ১২৫ রানের এই ফাইটিং স্কোর দাঁড় করায় বাংলাদেশ।  ৩৬ বলে ৩১ রান করে অপরাজিত থাকেন নিগার।  এছাড়া ফাহিমা খাতুন ১৫ ও সানজিদা ইসলাম ১৯ রান করেন।  স্কটল্যান্ডের হয়ে ১৭ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন প্রিয়ানাজ চ্যাটার্জি। 

জবাব দিতে নেমে স্কটিশ মেয়েরা ৮ রানে হারায় প্রথম উইকেট।  তবে দ্বিতীয় উইকেটে ৪৩ রান যোগ করেন সারা ও ক্যাথরিন ব্রাইস।  কিন্তু দুই বোনের রান তোলার গতি ছিল স্লথ।  ১২ ওভার শেষে তাদের রান ছিল ১ উইকেট ৪৬ রান।  ফলে শেষ ৮ ওভারে ৮০ রানের সমীকরণ দাঁড়ায় স্কটিশ মেয়েদের সামনে। 

কিন্তু সেই চাপে ভেঙে পড়ে স্কটিশ মেয়েরা।  দ্রুতই হারিয়ে ফেলে ৬ উইকেট।  ১৫.১ ওভারে ৬৫ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলে তারা।  বাংলাদেশের জয় তাই একরকম লিখা হয়ে যায় ওখানেই।  শেষ ওভারে জিততে ৫৪ রান প্রয়োজন ছিল স্কটিশদের।  তারা নিতে পারে ৪ রান। 

এদিন দারুণ বোলিং করেছেন রুমানা আহমেদ।  ৪ ওভারে ১০ রান দিয়ে ২ উইকেট নিয়ে।  রান আউট করেছেন একটি।  ম্যাচ সেরার পুরস্কারও হাতে উঠেছে তার।  ২ উইকেট নিয়েছেন নাহিদা আক্তার।  ১টি করে উইকেট নিয়েছেন সালমা খাতুন ও ফাহিমা খাতুন।