২:০৩ পিএম, ২১ আগস্ট ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯


শরীফকে বাঁচাতে জাককানইবিতে দু'দিনব্যাপী চলচ্চিত্র প্রদর্শনী

৩০ জুলাই ২০১৮, ০৯:০১ পিএম | সাদি


এস.এম.মহিউদ্দিন সিদ্দিকী, জাককানইবি প্রতিনিধি : জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিক্ষার্থী শরিফ আহমেদকে বাচাতে  ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের ছাত্রছাত্রীদের সাহিত্য ও জ্ঞানচর্চামূলক সংগঠন "ইংক"
আয়োজন করেছে দুদিন ব্যাপী ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল। 

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়(জাককানইবি)র ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের প্রথম বর্ষের ( শিক্ষাবর্ষ ২০১৭-১৮) তরুণ মেধাবী ও সম্ভাবনাময়ী একজন ছাত্র শরিফ আহমেদ। 

বাঁচতে চান মরণব্যাধি থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিক্ষার্থী শরীফ আহমেদ।   থ্যালাসেমিয়া এমন একটি রোগ যার ফলে দেহের লোহিত রক্তকণিকা উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায়।  শরীফের শরীরে রক্ত‚ শূন্যতা ধরা পড়ে আরও ছয় বছর আগেই এবং সেটির চূড়ান্ত ভয়ানক অবস্থা দাঁড়ায় থ্যালাসেমিয়ায়। 

দীর্ঘদিন ধরে শরীফের এই রোগটির চিকিৎসা চলছে আর্থিক দৈন্যদশায় মন্থরগতিতে।  শরীফের পূর্ণ চিকিৎসা ও সুস্থতার জন্য অচিরেই তার বোনমেরো ট্রান্সপ্লান্ট করা জরুরী।  যেটি শরিফের বাবার(ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ায় একজন চা বিক্রেতা)র পক্ষে সম্ভব নয়। 
পুরো বিষয়টি বিবেচনা ও পর্যালোচনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে একদিনের বেতন দান করা হয় ও সাধারন শিক্ষার্থীদের দ্বারা বেশ কিছু অর্থ সংগ্রহ করা হয় ক্রাউড ফান্ডিং এর মাধ্যমে।  কিন্তু এই সংগৃহীত অর্থ শরীফের পূর্ণ চিকিৎসার কাছে অতি সামান্য। 


দুদিন ব্যাপী এই ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে একদম নতুন ৬ টি চলচিত্র প্রদর্শনীর মাধ্যম যে পরিমান অর্থ সংগ্রহ করা হবে তার পুরোটাই শরীফের চিকিৎসার জন্য ব্যয় হবে বলে জানান ইংরেজি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আবদুল্লাহ আল মুক্তাদির। 

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. খোরশেদ আলম জানান, শিগগিরই শরীফের বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট করতে হবে।  এজন্য প্রয়োজন প্রায় ৩০ লাখ টাকা।