২:০৪ পিএম, ২০ নভেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০




চবি উপাচার্য সকাশে যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষাবিদ

২০ আগস্ট ২০১৮, ০৫:৩১ পিএম | মাসুম


এসএনএন২৪.কম : যুক্তরাষ্ট্রের সেন্ট জন ফিশার কলেজ-এর পদার্থ বিদ্যা বিভাগের প্রফেসর মনোয়ার করিম ২০ আগস্ট ২০১৮ তারিখ সকাল ১০.৩০ টায় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীর সাথে তাঁর অফিস কক্ষে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন এবং এক মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। 

এ সময় চবি জামাল নজরুল ইসলাম গণিত ও ভৌত বিজ্ঞান গবেষণা কেন্দ্রের পরিচালক প্রফেসর ড. অঞ্জন কুমার চৌধুরী, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) জনাব কে এম নুর আহমদসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন দপ্তরের উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

উপাচার্য অতিথিকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় সবুজ ক্যাম্পাসে স্বাগত জানান। 

তিনি অতিথি সকাশে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষদ, বিভাগ, ইনস্টিটিউট ও গবেষণা কেন্দ্রের একটি সংক্ষিপ্ত পরিচিতি তুলে ধরেন এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা, উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা কর্ম সম্পর্কে আলোকপাত করেন। 

বিশেষ করে প্রতিথযশা শিক্ষাবিদ আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন বিজ্ঞানী প্রফেসর ড. জামাল নজরুল-এর স্মৃতি অম্লান করে রাখার প্রয়াসে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে তাঁর নামে নামকরণকৃত উক্ত গবেষণা কেন্দ্রে উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণায় শিক্ষার্থী ভর্তিসহ এ প্রতিষ্ঠানে সেমিনার-সিম্পোজিয়াম ইত্যাদি কার্যক্রম সম্পর্কে বিশদ তুলে ধরেন।  প্রসঙ্গক্রমে বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের মধ্যে শীর্ষ (১ নম্বর) এবং ওয়ার্ল্ড র‌্যাঙ্কিং-এ ৩০৫০ অবস্থান লাভ করার বিষয়টি সম্পর্কে অতিথিকে অবহিত করেন। 

শিক্ষাবিদ ও গবেষক সম্মানিত অতিথি প্রফেসর মনোয়ার করিম উচ্চ শিক্ষা ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা-গবেষণার সার্বিক মনোরম পরিবেশ এবং বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে অবহিত হয়ে অত্যন্ত আগ্রহ প্রকাশ করেন এবং এ বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে তাঁর আন্তরিক সহযোগিতার বিষয়টি মাননীয় উপাচার্যকে অবহিত করেন। 

এ ছাড়া তাঁর ব্যক্তিগত ফান্ড থেকে এ বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী শিক্ষার্থীদের বৃত্তি প্রদানের ব্যাপারে প্রস্তাব পেশ করেন। 

উপাচার্য তাঁর এ প্রস্তাব সানন্দে গ্রহণ করেন এবং এ ব্যাপারে সার্বিক দিক-বিষয়াবলী উলে­খ করে একটি প্রস্তাবনা পত্র বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বরাবরে পেশ করার জন্য তাঁকে অনুরোধ জানান। 

সম্মানিত অতিথি উপাচার্যের এ পরামর্শ সানন্দে গ্রহণ করে শীঘ্রই একটি সমঝোতা (গঙট) চুক্তির ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণের ঐক্যমত্য পোষণ করেন।   



keya