৮:২৫ পিএম, ২১ এপ্রিল ২০১৯, রোববার | | ১৫ শা'বান ১৪৪০




অন্ধকারের শত্রুদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী

০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০২:৪৫ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বরেণ্য সমাজ বিজ্ঞানী, শিক্ষাবিদ, বুদ্ধিজীবী প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীকে হত্যার হুমকী প্রদানের প্রতিবাদে ৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখ চ.বি. বঙ্গবন্ধু পরিষদের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধু চত্বরে সকাল ১০ টায় এক মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

চ.বি. বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড. মো. রাশেদ-উন-নবীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক জনাব মোহাম্মদ মশিবুর রহমানের পরিচালনায় এ প্রতিবাদ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চ.বি. কলা ও মানববিদ্যা অনুষদের ডিন ও বঙ্গবন্ধু পরিষদের সদস্য প্রফেসর ড. মো. সেকান্দর চৌধুরী,

বঙ্গবন্ধু পরিষদের সহ-সভাপতি প্রফেসর ড. মোহাম্মদ কামরুল হুদা, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (ভারপ্রাপ্ত) প্রফেসর ড. মুস্তাফিজুর রহমান ছিদ্দিকী, বঙ্গবন্ধু পরিষদের সহ-সভাপতি ও অফিসার সমিতির সভাপতি জনাব এ কে এম মাহফুজুল হক,বঙ্গবন্ধু পরিষদের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক ও কর্মচারী সমিতির সভাপতি জনাব মো. আনোয়ার হোসেন, সদস্য-সর্বজনাব দেলোয়ার হোসেন, সরওয়ার হোসেন খোকন ও ইউসুফ আলী। 

এতে চ.বি. জীব বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মো. মাহবুবুর রহমান, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) জনাব কে এম নুর আহমদসহ বঙ্গবন্ধু পরিষদের সর্বস্তরের সদস্য, সম্মানিত শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। 

প্রতিবাদ সভায় বক্তাগণ বলেন, দেশের বুদ্ধিবৃত্তিক সমাজের অভিভাবক জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শের নির্ভীক সৈনিক চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরীকে বার বার হত্যার হুমকী প্রদান করা হচ্ছে।  এটি অত্যন্ত উদ্বেগজনক।  বক্তাগণ হুমকী প্রদানকারী অন্ধকারের শত্রু কাপুরুষদের অনতিবিলম্বে সনাক্ত এবং গ্রেফতার করে দেশের প্রচলিত আইনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের জোর দাবী জানান। 

বক্তাগণ আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু তনয়া আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সুযোগ্য নেতৃত্বে সকল সূচকে বাংলাদেশ যেমনটি দুর্বার গতিতে এগিয়ে চলেছে, শিক্ষা-গবেষণাসহ সকল ক্ষেত্রে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ও মাননীয় উপাচার্যের সুযোগ্য ও বলিষ্ট নেতৃত্বে এগিয়ে চলেছে একই গতিতে।  স্বাধীনতা বিরোধী কুচক্রীমহল এ উন্নয়ন-অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করতেই উপাচার্যকে বার বার হত্যার হুমকী প্রদান করে এ গতি স্থিমিত করতে চায়। 

বক্তাগণ এ সমস্ত কুচক্রীমহলকে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিহত-প্রতিরোধ করার দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।