৪:৪৮ এএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, রোববার | | ১২ মুহররম ১৪৪০


নান্দাইলে রাস্তা নির্মাণে অনিয়ম, নিম্ননামের ইটের খোয়া ব্যবহার

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১২:২৪ পিএম | জাহিদ


মো.শাহজাহান ফকির, নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের নান্দাইলে এলজিইডি কর্তৃক উলুহাটি বাজার হতে রাজগাতী ইউপি সড়কের কাজে ব্যাপক অনিয়ম-দূর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

সরজমিন দেখা যায়, নিয়ম অনুযায়ী ৫০% বালু ৫০% ১নং ইটের খোয়া সংমিশ্রন করে সাব ব্যাচ করার কথা থাকলেও ৭৫-৮০ ভাগ বালু/কাদা মাটি দিয়ে তার উপর নিম্নমানের ৩নং ইটের খোয়া ছিটিয়ে সাব ব্যাচের কাজ সম্পন্ন করা হয়।  এরপর নিম্নমানের ইটের র‌্যাবিশ দিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।  ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৬ সনে রাস্তাটির কাজ শুরু হয়।  এখন ২ বৎসর চলে গেছে তবু রাস্তা কাজ সম্পন্ন হয়নি। 

উক্ত রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করতে জনগণের খুবই সমস্যা হচ্ছে।  কাজের শুরুতে বালুর পরিবর্তে স্থানীয় একটি পুকুর থেকে ড্রেজার মেশিন দিয়ে রাস্তায় খাদা মাটি ব্যবহার করেছে বলেছে স্থানীয়রা অভিযোগ করেন।  থেমে থেমে কাজ আরম্ভ করা ও ধীরগতিতে কাজ এগিয়ে যাওয়ায় জনমনে তীব্র ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।  তবে এই সপ্তাহে উক্ত রাস্তায় পুনরায় কাজ শুরু হয়েছে।  এতে নিম্নমানের ইটের খোয়া ব্যবহার করা হচ্ছে।  রাস্তার দুপাশের ইটের ট্যাক বাধনে অল্প অল্প কাদা মাটি দিয়ে হাতের গজায় কলেবলে কাজ চালানো হচ্ছে। 

সমাজ সেবক শফিকুল ইসলাম বলেন, “উক্ত রাস্তার কাজের ঠিকাদার একদিনও এসে দেখ যান নাই। ”

স্থানীয় সচেতন মহল বলেন, গ্রামগঞ্জের রাস্তার ঘাটের এমন ভাবে যদি কাজ করা হয় তাহলে আমাদের বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অঙ্গিকার কতটুকু করা সম্ভব হবে? এতে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হচ্ছে।  আপনার লিখুন।  এ বিষয়ে রাস্তার কাজের স্থলে ঠিকাদারকে পাওয়া যায়নি।  ঠিকাদারের প্রতিনিধি মো. কাজল মিয়া জানান, ‘স্থানীয় ইটখলার মালিক এই দুই নাম্বার ইটের খোয়া পাঠিয়েছেন”। 

ঠিকাদারের মোবাইল নাম্বার জানতে চাইলে তিনি বলেন, ঠিকাদার রিয়াজ ভাই’য়ের তো অনেক কাজ।  তাই সব কাজের তদারকিতে উনি আসতে পারেন না।  পরে ঠিকাদার রিয়াজ উদ্দিনের সাথে কথা বললে তিনি একই কথা বলেন। ” নান্দাইল উপজেলা প্রকৌশলী আবুল খায়ের মিয়া বলেন, এ বিষয়ে ঠিকাদারকে জানানো হয়েছে। 


keya