৫:২১ এএম, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১৪ মুহররম ১৪৪০


সড়কে যত্রতত্র পারাপারে শিক্ষার্থীদের আরো সতর্ক হতে হবে : কাদের

১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০২:৫২ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : নিরাপদ সড়কের দাবিতে এবং সড়কে শৃঙ্খলা নিশ্চিতের দাবিতে ছাত্ররা আন্দোলন করলেও এখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাস যানজটে পড়লেই চালককে উল্টোপথে চালাতে চাপ দেয়া হচ্ছে।  সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শিক্ষার্থীদের এই প্রবণতা ত্যাগের অনুরোধ করেছেন। 

শুক্রবার রাজধানীতে আনোয়ার খান মডার্ন মেডিকেল কলেজের দশম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে দেয়া বক্তব্য এ কথা বলেন তিনি। 

কাদের বলেন, ‘আমরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিআরটিসি বাস দিয়েছি, রাস্তায় যানজট দেখলে ছাত্রছাত্রীরা ড্রাইভারকে বলে উল্টো পথে যেতে।  আমি অনুরোধ করব, এগুলো করবেন না।  এই প্রবণতা থেকে ছাত্রছাত্রীদের বের হয়ে আসতে হবে। ’

২৯ জুলাই ঢাকার বিমানবন্দর সড়কে বাস চাপায় রমিজউদ্দিন ক্যান্টনমেন্ট কলেজের দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর প্রতিক্রিয়ায় এক সপ্তাহ ধরে চলে ছাত্র আন্দোলন।  একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শুরু করলেও পরে রাজধানীর আরও বহু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ছাত্রছাত্রীরা বের হয়ে এসে আন্দোলনে নামে। 

এই এক সপ্তাহে ফিটনেস ও লাইসেন্সহীন চালকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার দাবি ছাড়াও পরিবহন খাতে শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে নানা দাবি জানায়।  এর মধ্যে অন্যতম ছিল উল্টোপথে চলা। 

এই আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের বাইরেও বিপুল সংখ্যক মানুষ সমর্থন জানালেও সড়কে আইন অমান্যের প্রবণতা কমেছে, এ কথা আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বলা কঠিন।  কারণ, যেখানে সেখানে বাস থেকে উঠানামা, যেখান সেখান দিয়ে রাস্তা পারাপার বন্ধ হয়েছে, এমন বলা যায় না।  শিক্ষার্থীরাও ফুটওভার ব্রিজ ছেড়ে নিচের সড়ক দিয়ে রাস্তা পার হচ্ছে প্রতিনিয়ত। 

সড়ক মন্ত্রী বলেন, ‘সড়কে যত্রতত্র পারাপারে শিক্ষার্থীদের আরো সতর্ক হতে হবে।  ...অনেক ছাত্রছাত্রী হেডফোন লাগিয়ে রাস্তার এপার থেকে ওপার যাচ্ছে।  ফুটওভার ব্রিজ দিয়ে যাবে না। ...মা সন্তানকে নিয়ে রাস্তা পার হবে ফুটওভার ব্রিজে উঠবে না। ’

মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদেরকে চিকিৎস জীবনে মানবিক হওয়ার তাগাদাও দেন কাদের।  বলেন, ‘এখান থেকে ভাল রেজাল্ট করে যাচ্ছেন, মানুষের সেবা করবেন।  আমরা অনেক হাসপাতালে গিয়ে দেখি হাসপাতাল না আস্তাবর।  হাসপাতাল যদি রোগী হয়, তাহলে রোগীর চিকিৎসা কীভাবে হবে?’

শিক্ষার্থীদেরকে আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, ‘জীবনই হচ্ছে চ্যালেঞ্জ।  অতিক্রম করা যাবে না, এমন চ্যালেঞ্জ নাই। ’

সমাজ থেকে অন্ধকার দূর করতে আলোর চর্চা করারও আহ্বান জানান কাদের।  যুক্তরাষ্ট্রের অধিকারকর্মী মার্টিন লুথার কিং এর কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অন্ধকারকে অন্ধকার দিয়ে দূর করা যায় না।  অন্ধকারকে দূর করতে হয় আলো দিয়ে। ’


keya