১১:০০ পিএম, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, শনিবার | | ৬ রবিউস সানি ১৪৪০




আগামী ছয় মাসের মধ্যে ডেন্টাল ইউনিট স্থাপন করা হবে

০৬ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৩:২০ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : ‘‘স্বাস্থ্যসেবা খাতে চাই স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা’’ এই শ্লোগানে ৬ ডিসেম্বর বেলা ১২ ঘটিকায় দুর্নীতিবিরোধী সংগঠন টিআইবি’র সহযোগিতায় সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক)-চট্টগ্রাম মহানগরের উদ্যোগে স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। 

হাপতালের তত্ত্বাবধায়ক (উপ-পরিচালক) ডা. অসীম কুমার নাথের সভাপতিত্বে এবং টিআইবি’র এরিয়া ম্যানেজার মোহাম্মদ তৌহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।  সভায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আবাসিক মেডিকেল আফিসার (আরএমও) ডা. দীনেশ চন্দ্র শীল, সিনিয়র কনসালট্যান্ট ডা. এ কে এম ফয়েজ উল্লাহ, ডা. আনিকা চাকমা, ডা. সাবিহা কাদির, জুনিয়ার কনসালটেন্ট ডা. নুরুল আজিম, ডা. বিজন কুমার নাথ, নার্সিং সুপার হাজেরা খাতুন, পরিসংখ্যানবিদ মুহাম্মদ শওকত আল আমিন, হাসপাতালের দায়িত্বপ্রাপ্ত তথ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফয়েজ, টিআইবির সনাক সদস্য রওশন আরা চৌধুরী, স্বজন সমন্বয়ক এসএম ফরহাদ উল্লাহ, সঞ্জয় বিশ্বাস, কায়েস চৌধুরী ও সনাক টিআইবির ইয়েস ও ইয়েস ফ্রেন্ডস সদস্যবৃন্দ। 

অনুষ্ঠানে জেনারেল হাসপাতালে সেবা গ্রহণকারি রোগীদের বিভিন্ন সমস্যা তুলে ধরা হলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সেবার মান উন্নয়নের লক্ষ্যে সমস্যা সমূহের কিছু কিছু তাৎক্ষনিক সমাধান প্রদান করেন আবার কিছু কিছু সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতি প্রদান করেন।  সেবা নিতে আসা রোগিদের সমস্যাসমূহ কর্তৃপক্ষের নজরে আনা এবং সমস্যা সমাধানে কর্তৃপক্ষকে উদ্যেগী করে তোলতে সনাক-টিআইবি নিয়মিত এই ধরনের সভার আয়োজন করে থাকে। 

হাসপাতালের অভ্যান্তরে বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানীর বিক্রয় প্রতিনিধিদের বিড়ম্বনা রোগী হয়রানির অন্যতম প্রধান সমস্যা হিসাবে বিবেচনা স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের নির্দেশ কার্যকর করতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করেন সনাক ও টিআইবি প্রতিনিধি বৃন্দ। 

সভাপতির বক্তব্যে জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক (উপ-পরিচালক) ডা. অসীম কুমার নাথ বলেন, এ হাসপাতালের ২৫০ শয্যার জনবল নেই কিন্তু সেবা দিতে হচ্ছে আরো অধিক জনগোষ্টিকে।  তিনি জানান, আগামী ০৬ মাসের মধ্যে হাসপাতালে ডেন্টাল ইউনিট চালু করা হবে। 

হাসপাতালে চর্ম রোগ বিভাগে ডাক্তার সংকট নিরসনে কর্তৃপক্ষের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।  হাসপাতালের সেবা সহজকরণে সনাকের চলমান কার্যক্রমের জন্য টিআইবি কর্তৃপক্ষের প্রতি ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।  হাসপাতালের সমস্যার পাশাপাশি বিভিন্ন ভাল উদ্যেগ ও সীমাবদ্ধতাটুকু বিভিন্ন স্টেকহোল্ডারের সাথে শেয়ার করার জন্য তিনি সনাককে আহ্বান জানান।   



keya