৫:২৩ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, সোমবার | | ২৩ মুহররম ১৪৪১




২২ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম বইমেলার অন্যতম অনুষঙ্গ ‘সাহিত্য সম্মেলন’

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০:১২ এএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : ‘ভাষা আন্দোলনের অন্যতম প্রাপ্তি একুশের বইমেলা।  বইমেলার অন্যতম অনুষঙ্গ সাহিত্য সম্মেলন।  বইমেলা আমাদের সংস্কৃতির অন্যতম ইতিবাচক দিক। 

এ মেলার অন্তর্নিহিত চেতনা জাগ্রত থাকে একুশের চেতনাকে কেন্দ্র করে।  যে চেতনায় উজ্জিবীত হয়ে আমরা অসাম্প্রদায়িক, মানবিক চেতনায় সমৃদ্ধ হই।  এ দেশে রাজনৈতিকভাবে মৌলবাদের উত্থান ঘটেছে।  গ্রামে-গঞ্জে ফতোয়ার নামে নারীদের নির্যাতন করা হচ্ছে, কখনও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়কে লাঞ্চিত করা হচ্ছে। 

কিন্তু সাংস্কৃতিক পরিম-লের দিকে তাকালে দেখা যায় তারা কখনো এই অশুভ, অমঙ্গলকর দিকগুলোকে পশ্রয় দেয়নি।  বইমেলা বাঙালির চেতনাকে জাগ্রত রাখে, চেতনাকে শানিত করে।  এটা শুধু বইয়ের জগত নয়।  এর সঙ্গে আছে মানুষের সুস্থ-সুন্দর-পরিশীলিতভাবে বেঁচে থাকার অঙ্গিকার। ’

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে, চট্টগ্রাম সৃজনশীল প্রকাশক পরিষদ এবং চট্টগ্রামের নাগরিক সমাজ লেখক, সাংবাদিক, শিক্ষাবিদ ও সাহিত্য-সাংস্কৃতিক সংগঠনের উদ্যোগে গত ১০ ফেব্রুয়ারি এম.এ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন জিমনেশিয়াম প্রাঙ্গণে চলমান চট্টগ্রামের অমর একুশে বইমেলা মঞ্চে আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার দিনব্যাপী কলম সাহিত্য সংসদ, লন্ডনের উদ্যোগে অনুষ্ঠেয় ‘বিশেষ সাহিত্য সম্মেলন’-এর কর্মসূচি চূড়ান্তকরণকল্পে আজ ১২ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় চসিকের ৩য় তলায় সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা এসব কথা বলেন। 

“অক্ষরে অমরতা” স্লোগানের পতাকাবাহী আন্তর্জাতিক সাহিত্য ও সমাজ কল্যাণমূলক সংগঠন ‘কলম সাহিত্য সংসদ লন্ডন’-এর উদ্যোগে এবং সমাজ, সংস্কৃতি, উন্নয়ন, মানবাধিকার, মুক্তিযুদ্ধ ও মুক্তচিন্তার জবাবদিহিমূলক সংগঠন ‘আমরা করবো জয়’-এর সার্বিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠেয় সাহিত্য সম্মেলন দিনব্যাপী নানা আয়োজনের পাশাপাশি প্রকাশিত হবে দেশ-বিদেশের কলমীদের লেখা নিয়ে ‘শতকলম’।  এছাড়া, সম্মেলন উপলক্ষে প্রকাশিত হবে বিশেষ স্মারক। 

বাংলাদেশ ও ইউকে সরকারের রেজিস্টার্ড চ্যারিটিবল অর্গানাইজেশন ‘সারাহ হাবিব ট্রাস্ট লন্ডন’-এর সহযোগী সংস্থা কলম সাহিত্য সংসদ লন্ডন-এর বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের সভাপতি লেখক-সাংবাদিক শওকত বাঙালির সভাপতিত্বে সভায় সূচনা বক্তব্য দেন কলমের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক ও কেন্দ্রীয় সভাপতি প্রফেসর ড. নজরুল ইসলাম হাবিবী। 

আলোচনায় অংশ নেন একুশে বইমেলা পরিষদের আহ্বায়ক ও চসিক কাউন্সিলর নাজমুল হক ডিউক, সৃজনশীল প্রকাশক পরিষদের সভাপতি ও মেলা পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন শাহ্ নিপু, চসিক প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা ও মেলা পরিষদের সদস্য সচিব সুমন বড়ুয়া, চসিকের যুগ্ম সচিব ও সমাজকল্যাণ কর্মকর্তা আশেক রসুল টিপু, কলমের আন্তর্জাতিক কো-অডিনেটর সাদেক চৌধুরী, শিক্ষাবিদ ও সাহিত্যিক এ.ওয়াই.এমডি জাফর, শিশুসাহিত্যিক ও স্বকাল সাহিত্য সংসদের পরিচালক অরুণ শীল, সংগঠনের চট্টগ্রাম জেলা সহ-সভাপতি সাহিত্যিক করুণা আচার্য, এস.এমএইউ জাহাঙ্গীর হাছান প্রমুখ। 


keya