১০:১২ পিএম, ১৮ অক্টোবর ২০১৯, শুক্রবার | | ১৮ সফর ১৪৪১




বাগেরহাটে দিনব্যাপী ১০১ তম সাহিত্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ০৬:৩৪ পিএম | জাহিদ


এম.পলাশ শরীফ,বাগেরহাট : সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ও কবি সাহিত্যিকদের সংগঠন গাঙচিলের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. রইচ উদ্দীন বলেছেন, কবিতা না কবি হলো অমৃতস্যপুত্র, আজকে কবিরা যাভাবে, যা কল্পনা করে তা একদিন রাজনীতিবিদ, বৈজ্ঞানিকরা আবিস্কার করে পরবর্তিতে তা বাস্তবায়ন করেন। 

বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলাম একদিন বলেছিলেন আপন হাতের মুঠোয় পুরে, দেখব আমি জগৎটারে।  আপনহাতের মুঠোয় জগৎটাকে দেখা যায়।  তখন তাকে অনেকে পাগল বলে আখ্যায়িত করেছিলেন।  মানুষ চাঁদে যাবে কবিরাই কল্পনা করেছিলেন।  বৈজ্ঞানিক, ইঞ্জিনিয়ার আবিস্কারক কারা তা কবিরা প্রমাণ করে দিয়েছে।  এদেশ স্বাধীন হবে, সেই স্বাধীনতার বীজমন্ত্র কে বপন করেছে, করেছেন কবিরা।  

শনিবার সকালে বাগেরহাট শহরের সাংষ্কৃতিক ফাউন্ডেশনের এসি লাহা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত গাঙচিলের ১০১তম আর্ন্তজাতিক সাহিত্য সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। 

শুদ্ধ সাহিত্য ও সংষ্কৃতি চর্চা হোক বিশ্ববন্ধুত্বের মূলমন্ত্র এই আহ্ববানে বাগেরহাটে দিনব্যাপী সাহিত্য সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।  বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, আমেরিকা ও সুইডেনের অন্তত ৩০ জন কবি ও সাহিত্যিক এই সম্মেলনে যোগদেন। 

কবি সাহিত্যিক ও উপন্যাসিকদের মধ্যে ছিলেন ভারতের সুকেশ কুমার মন্ডল, সুব্রত কুমার বড়াই, চন্দনা ঘাঁটি, পুষ্পরাণী সাঁতরা, কৃষ্ণেন্দু হাইত, ড. কল্যাণ রায় ও ড. সুজাতা রায়, সুইডেনের লুৎফর রহমান সৈয়দ, আমেরিকার চিন্ময় রায় চৌধূরী, ঢাকার সীমা ইসলাম, কবি মাতবর রফিক, মুক্তিযোদ্ধা কবি আবু সুফিয়ান খান ও কবি শাহী সবুর। 

সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তৃতা করেন গাঙচিল সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা ও শ্রম অধিদপ্তরের পরিচালক খান আকতার হোসেন, ভারতের বাংলা পত্রিকার সম্পাদক ড. কল্যান রায়, সহ সম্পাদক ড. সুজতা রায়, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট মো কামরুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সদর সার্কেল মো: শাহাদাৎ হোসাইন, বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সভাপতি আহাদ উদ্দিন হায়দার। 

এসময় অন্যান্যদের মধে বক্তৃতা করেন জেলা কালচারাল অফিসার মো: রফিকুল ইসলাম, গাঙচিল সাহিত্য সংস্কৃতি পরিষদের বাগেরহাট জেলা শাখার উপদেষ্টা এ্যাডভোকেট পারভিন আহম্মেদ, সাধারন সম্পাদক সৈয়াদা তৈফুন নাহার, সহসভাপতি সৈয়দ শওকত হোসেন, রিজিয়া পারভিন, শেখ আসাদুজ্জামান, রেখা আলী প্রমুখ।  সম্মেলন শেষে  আমেরিকা, সুইডেন, ভারত ও বাংলাদেশের কবি সাহিত্যিক ও শিল্পিদের অংশগ্রহনে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়।