৯:৫৪ পিএম, ২০ মার্চ ২০১৯, বুধবার | | ১৩ রজব ১৪৪০




জ্ঞান অর্জনের মাধ্যমে মানবিক গুণাবলীর অধিকারী হতে হবে : চবি উপাচার্য

১৩ মার্চ ২০১৯, ০৩:১৯ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, উন্নয়ন সমৃদ্ধির অগ্রযাত্রায় আগামীর বাংলাদেশের পথ দেখাবে আজকের নবীনরাই।  সততা, দক্ষতা, ন্যয়পরায়নতা এবং মানবিক গুণাবলীর অধিকারী হয়ে আমাদের নবীন শিক্ষার্থীরা ভবিষ্যত বাংলাদেশ বিনির্মাণ করবে। 

১৩ মার্চ চবি গ্রন্থাগার অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত ফেনী জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতি, চবি’র নবীন বরণ ও আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন।  অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন চবি মাননীয় উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার। 

উপাচার্য তাঁর ভাষণে নবীন শিক্ষার্থীদের আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।  তিনি বলেন, শিক্ষার্থীদের মাঝে পারস্পরিক সৌহার্দ-সম্প্রতি ও বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক সৃষ্টিতে এ ধরণের অ লভিত্তিক সংগঠনগুলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে; নবীন-প্রবীনদের মাঝে সৃষ্টি হয় মেলবন্ধন।  তিনি আরও বলেন, আমাদের নবীন শিক্ষার্থীরা সর্বোচ্চ মেধা যাচাই পরীক্ষায় উত্তির্ণ হয়ে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পেয়েছে।  তাদের এই মেধাকে কাজে লাগিয়ে সময়ের প্রতি নিষ্ঠাবান থেকে পড়াশুনায় অধিকতর  মনোযোগী হয়ে নিজেদের জ্ঞানের পরিধিকে অধিকতর বিস্তৃতি করার কাজে আত্মনিয়োগ করতে হবে। 

উপাচার্য নবীন শিক্ষার্থীদের সকল প্রকার অন্যায়-অবিচার-দুর্নীতি এবং মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্ঞানভান্ডার থেকে অবিরাম জ্ঞান আহরণের মাধ্যমে জ্ঞান-গবেষণায় নিজেদের অধিকতর সমৃদ্ধ করে আলোকিত মানব সম্পদে পরিণত হয়ে বিশ্বকে আলোকিত করার আহ্বান জানান।   

ফেনী জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতি, চবির সভাপতি জনাব মো. এনায়েত উল্যাহ তাহসীন-এর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক জনাব মো. সোহরাব হোসেন পাভেলের পরিচালনায় এতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন চবি পরিসংখ্যান বিভাগের সভাপতি প্রফেসর মোহাং মনিরুল ইসলাম, রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব এ জি এম নিয়াজ উদ্দিন, চট্টগ্রাম কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ড. এ কে এম শামসু উদ্দিন আজাদ এবং চবি’র ২১ তম ব্যাচের প্রাক্তন শিক্ষার্থী জনাব রেজাউল হক স্বপন। 

অনুষ্ঠানে চবি’র বিভিন্ন বিভাগের সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দ, ফেনী জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দ ও সদস্যবৃন্দ এবং বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।  পরে শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় পরিবেশিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। 


keya