১২:১২ এএম, ২৫ আগস্ট ২০১৯, রোববার | | ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




২৫ মার্চ গণহত্যা ও ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস উদযাপন উপলক্ষে চবি আয়োজিত কর্মসূচি

২১ মার্চ ২০১৯, ০৪:৪৬ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস পালন ও ২৬ মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপনের লক্ষ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। 

কর্মসূচিতে রয়েছে-গণহত্যা দিবস স্মরণে ২৫ মার্চ ২০১৯ সন্ধ্যা ৬.৩০ টায় বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু চত্বরে আলোচনা সভা ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালন করা হবে এবং এ দিবস স্মরণে রাত ৯ টা থেকে ৯ টা ১ মিনিট পর্যন্ত সব ধরণের বাতি বন্ধ রাখা হবে।  ২৬ মার্চ রাত ১২.০১ মিনিটে (২৫ মার্চ দিবাগত রাতে) চবি স্বাধীনতা স্মৃতি স্তম্ভ চত্বরে চবি বিএনসিসি কর্তৃক বিউগল বাজিয়ে স্বাধীনতা দিবসকে স্বাগত জানানো হবে।  ২৬ মার্চ ফজরের নামাজের পর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদ ও অন্যান্য মসজিদসমূহে স্বাধীনতা যুদ্ধে বীর শহীদদের রুহের মাগফেরাত ও দেশের সমৃদ্ধি কামনা করে প্রার্থনা এবং অন্যান্য ধর্মাবলম্বীদের স্ব স্ব উপাসনালয়ে শহীদদের আত্মার শান্তি ও দেশের সমৃদ্ধি কামনা করে প্রার্থনা। 

একইদিন সকালে প্রশাসনিক ভবন, চাকসু ভবন ও হলসহ অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ ভবনসমূহে জাতীয় পতাকা উত্তোলন।  ২৬ মার্চ সকাল ৮ টায় চবি স্বাধীনতা স্মৃতি স্তম্ভে পুস্পমাল্য অর্পণ।  অতঃপর চবি বঙ্গবন্ধু চত্বরে অনুষ্ঠিত হবে আলোচনা সভা।  আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।  আলোচনা সভা শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০০ তম জন্মদিন (১৭ মার্চ) জাতীয় শিশু দিবসে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক আয়োজিত চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হবে।  আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করবেন চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার।  আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ শেষে অনুষ্ঠিত হবে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।  মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ২৬ মার্চ বিশ^বিদ্যালয়ের ১ ও ২ নং গেইট ও প্রশাসনিক ভবনসহ গুরুত্বপূর্ণ ভবনে আলোকসজ্জার ব্যবস্থা করা হবে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা-কর্মচারী সকলের কর্মসূচিতে অংশগ্রহণের সুবিধার্থে ২৬ মার্চ ২০১৯ সকাল ৬.৪৫ মিনিটে ৩ টি বাস চট্টগ্রাম শহরস্থ আগ্রাবাদ ও নিউমার্কেট থেকে ছেড়ে চবি ক্লাব (শহর) হয়ে কম্বাইন্ড রুট অনুসরণ করে ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠানস্থলে আসবে এবং সকাল ৭.৩০ মিনিটে ২টি বাস চবি পরিবহন দপ্তর থেকে ছেড়ে মার্কেটিং রুট অনুসরণ করে অনুষ্ঠানস্থলে আসবে।  অনুষ্ঠান শেষে বাসগুলো যথারীতি ফিরে যাবে।  চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের অনুষ্ঠানমালায় অংশগ্রহণের জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা যাচ্ছে।  


keya