৬:২১ এএম, ১৯ অক্টোবর ২০১৯, শনিবার | | ১৯ সফর ১৪৪১




৭১ এর ২৫ মার্চ গণহত্যা বিশ্ব ইতিহাসে এক কলংকজনক অধ্যায় : চবি উপাচার্য

২৫ মার্চ ২০১৯, ০৮:০৭ পিএম | জাহিদ


এসএনএন২৪.কম : গণহত্যা দিবস স্মরণে ২৫ মার্চ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু চত্বরে আলোচনা সভা ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলন কর্মসূচি পালিত হয়। 

এ আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ভাষণ দেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।  সভায় সভাপতিত্ব করেন চবি উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার।  আলোচনা সভার  শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন চবি প্রক্টর প্রফেসর মোহাম্মদ আলী আজগর চৌধুরী। 

উপাচার্য তাঁর ভাষণে ১৯৭১ এর ২৫ মার্চ পাকিস্তানি স্বৈরাচারী বাহিনীর হাতে নির্মমভাবে শহীদের বিনম্র চিত্তে স্মরণ করেন এবং নির্যাতিত মা-বোনদের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করেন।  উপাচার্য মহাকালের মহানায়ক স্বাধীন বাংলাদেশের মহান স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, ১৯৭১ এ ২৫ মার্চ গণহত্যা বিশ্ব ইতিহাসে একটি কলংকজনক অধ্যায়। 

এদিন পাকিস্তানি হায়েনার দল নিরস্ত্র বাঙালির উপর সশস্ত্রভাবে ঝাঁপিয়ে পড়ে নির্বিচারে নিষ্ঠুরভাবে গণহত্যায় মেতে ওঠেছিল।  বাঙালি জাতি এসকল কাপুরুষদের ঘৃণাভরে ধিক্কার জানাচ্ছে।  উপাচার্য আরো বলেন, পাকিস্তানি দোসরদের প্রেতাত্মারা এখনো সুযোগ পেলে ছোবল মারবে।  তিনি এ সকল অন্ধকারের অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে সজাগ থেকে জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে বঙ্গবন্ধু তনয়া আধুনিক বাংলাদেশের রূপকার প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করার জন্য স্ব স্ব অবস্থান থেকে সকলকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখার আহবান জানান।  উপাচার্য ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবস উপলক্ষে সংশ্লিষ্ট সকলকে সাথে নিয়ে বঙ্গবন্ধু চত্বরে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করেন।   

এ সময় চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের সদস্যবৃন্দ, রেজিস্ট্রার, সহকারী প্রক্টরবৃন্দ, ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ এবং বিপুল সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।  

উল্লেখ্য, গণহত্যা দিবস উপলক্ষে ২৫ মার্চ ২০১৯ রাত ৯ টা থেকে ৯ টা ১ মিনিট পর্যন্ত সবধরণের বাতি বন্ধ রাখা হবে।