৭:১৯ পিএম, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার | | ২২ রমজান ১৪৪০




ইসলামপুরে ভিজিডি প্রকল্পে চাল পাচ্ছেনা দুঃস্থ মানুষেরা

২১ এপ্রিল ২০১৯, ০৭:৩৪ পিএম | জাহিদ


তানভীর আহমেদ হীরা, জামালপুর : জামালপুর জেলার ইসলামপুরে ভিজিডি প্রকল্পের আধিনে দুঃস্থ মহিলারা মার্চ মাস থেকে চাল পাওয়ার কথা থাকলেও সংশিষ্টদের তালিকা প্রণয়নে গাফিলতির কারণে তিন মাস অতিবাহিত হলেও কার্যক্রম এখনো শুরু হয়নি।  ফলে দুস্থ মাতারা মানবেতর জীবন যাপন করছে। 

ইসলামপুর উপজেলা মহিলা বিষয়ক সূত্রে জানা গেছে, মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রনালয় এবং খাদ্য মন্ত্রনালয়ের যৌথ উদ্যোগে দুঃস্থ মহিলা উন্নয়নে ভালনারেবল গ্রুপ ডেভেলপমেন্ট ফিডিং (ভিজিডি) প্রকল্পটি দীর্ঘদিন ধরে বাস্তবায়িত হয়ে আসছে।  ইসলামপুর উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে জনসংখ্যা অনুযায়ী ইউপিগুলো ২০১৯-২০২০ চক্রের কার্ডের বরাদ্ধ ছিল ৩৩৬৩ টি। 

অনুসন্ধানে জানা গেছে, প্রকল্পের নতুন তালিকা বাস্তবায়নে দায়িত্ব নিয়োজিতরা তালিকা তৈরীতে ভিজিডি কার্ড নিয়ে আত্মীয় করণ,দলীয় করণ,মুক্তিযোদ্ধা কোঠা ও চেয়ারম্যানরা ও ইউপি সদস্য/সদস্যাদের ভাগ বাটোয়ার কারণে নানা গড়িমসিতে প্রকল্পের কাজ শুরু করতে বিলম্ব হচ্ছে । 

ইসলামপুর খাদ্য গুদামে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত মার্চ মাসের ২৮ তারিখে পুষ্টি চাল তৈরী জন্য সংশ্লিষ্ঠ ঠিকাদার মিলমালিক ইসলামপুর খাদ্য গুদাম থেকে উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের মার্চ মাসের ভিজিডি চাল নিয়েছে।  কিন্তু নিয়মানুযায়ী মার্চ মাসের ভিজিডি মার্চ মাসেই দুঃস্থ্ মাতাদের জন্য প্রতিটি ইউনিয়নের পৌঁছে দেওয়া কথা থাকলেও ইউপি চেয়ারম্যানদের সাথে কথা বলে জানা গেছে দুই/একটি ইউনিয়ন ছাড়া এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এখনো কোন ইউনিয়নে মার্চ মাসের পুষ্টি ভিজিডি চাল পৌঁছেনি। 

এছাড়াও উপজেলা ১২ ইউনিয়নে কোন ইউনিয়নের জানুয়ারী, ফেব্রুয়ারী মাসে ভিজিডি বিতরণ কার্যক্রম শুর করা হয়নি। 

ইসলামপুর খাদ্য গুদাম কর্মকতা মোহাম্মদ লুৎফর রহমান জানান, মার্চ মাস থেকে ভিজিডি পুষ্টি চাল হওয়ায় উপজেলার ১২টি ইউনিয়নের মধ্যে নোয়ারপাড়া, চরপুটিমারী ও চরগোয়ালীনি ইউনিয়নে শুধু জানুয়ারী,ফেব্রুয়ারী মাসের ভিজিডি মাল নিয়ে গেছে চেয়ারম্যানরা। 

চরগোয়ালীনি ইউপি সচিব মাসুম জানান, সুবিধা ভোগীদের কার্ড মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর থেকে দেরিতে পাওয়ায় কার্ড ঠিক করে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে ভিজিডি বিতরণ করা হবে। 

বৃহস্প্রতিবার পলবান্ধা ইউপি চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহাদাৎ হোসেন স্বাধীন জানান, তার ইউনিয়নে মার্চ মাসের কোন ভিজিডি পুষ্টি চাল পৌঁছেনি।