২:৪৭ পিএম, ২১ জুলাই ২০১৯, রোববার | | ১৮ জ্বিলকদ ১৪৪০




কে সেই গডফাদার? আধিপত্যকে কেন্দ্র করে যুবক খুন : শহরজুড়ে আতঙ্ক

১২ মে ২০১৯, ১০:১৬ এএম | জাহিদ


সৈয়দ ফয়েজ আলী, মৌলভীবাজার : মৌলভীবাজারের সদর উপজেলায় আদিপত্য বিস্তারের পূর্ব শত্রুতার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় রুবেল আহমদ (২৪) নামের এক যুবক নিহত হয়েছেন। 

এ ঘটনায় তিন জনকে আটক করেছে মৌলভীবাজার মডেল থানা পুলিশ।  শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার মোস্তফাপুর ইউনিয়নের হিলালপুর এলাকায় এই ঘটনাটি ঘটে।  নিহত রুবেল একই এলাকার শহীদ উল্লাহর ছেলে।  এ ঘটনায় আটকৃতরা হলেন, বড়কাপন এলাকার আনোয়ার মিয়া (৩০) তুহিন মিয়া (২৮) ও সোহেল মিয়া (৩২)। 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পূর্ব থেকে পৌরসভাধীন বড়কাপন এলাকার বাসিন্দা বঙ্গবন্ধু ছাত্র পরিষদ মৌলভীবাজার জেলা শাখার সহ-সভাপতি ও ছাত্রলীগ পরিচয়দানকারী বাবুল আহমেদের গ্রুপের সাথে নিহত রুবেল ও তার গ্রুপের এলাকায় আদিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে শত্রুতা ছিল।  শনিবার বিকেলে অতর্কিত ভাবে বাবুল গ্রুপ রুবেল গ্রুপের উপর হামলা চালায়। 

এক পর্যায়ে বাবুল গ্রুপের ছেলেদের দা’র আঘাতে রুবেল গুরুতর আহত হন।  পরে তাকে উদ্ধার করে মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে নেয়া হলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।  সিলেট নেয়ার পথে সে মারা যায়।  এদিকে এই হত্যাকান্ডকে কেন্দ্র করে শহরের বড়কাপন এলাকায় রুবেল গ্রুপের সদস্যরা রাস্তা অবরোধ করে কয়েকটি সিএনজি অটো রিকশা ভাঙচুর করেন। 

জানা গেছে শহরের এক প্রভাবশালী ব্যক্তির চত্র ছাঁয়ায় এ ঘটনাটি ঘটেছে।  স্থানীয় বাসিন্দারা নাম প্রকাশে বলেন যদি সন্ত্রাসী এই গডফাদাকে গ্রেফতার করা হয় তাহলে শহরে শান্তি শৃঙ্খলা ফিরে আসবে।  ইতিপুর্বে অসংখ্য ঘটনাও ঘটিয়েছেন বলে মন্তব্য করেন অনেকে।  তিনি একের পর এক ঘটনা ঘটিয়েই যাচ্ছেন কিন্তুু কর্তৃপক্ষ রহস্য জনক কারনে গ্রেফতার হচ্ছেন না। 

মৌলভীবাজার সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশেদুল ইসলাম জানান, এলাকায় আদিপত্য বিস্তার নিয়ে এই হত্যাকান্ড ঘটেছে।  আমরা প্রাথমিক ভাবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন যুবককে আটক করেছি।  এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রনে রয়েছে। 


keya