৩:২৯ পিএম, ২১ আগস্ট ২০১৯, বুধবার | | ১৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০




বাঘাইছড়িতে ভবন নির্মাণকালে বৈদ্যতিক তারের শক খেয়ে নির্মান শ্রমিক আহত

১২ মে ২০১৯, ০৮:৫২ পিএম | জাহিদ


জগৎ দাশ, বাঘাইছড়ি : রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মণিরুল ইসলাম (১৮) নামের এক নির্মাণ শ্রমিক গুরত্বর  আহত হয়েছে। 

রোববার (১২ মে) দুপুরে চৌমুহনী কলেজ রোডে আবুল মাছুম ঠিকাদারের  মালিকানাধীন শপিংমলের দ্বিতিয় তলা নির্মাণ কাজের সময় এ ঘটনা ঘটে।  বাঘাইছড়ি বিদ্যুৎ বিভাগের আবাসিক প্রোকৌশলী সুগতম চাকমা বলেন আমি চট্রগ্রামে একটি ট্রেনিয়ে আছি আমার লাইনম্যানের মাধ্যমে দূর্গটনার বিষয়টি জেনেছি।  ভবন মালিককে কাজ শুরুর আগে আমি সতর্ক করে কাজ বন্ধ রাখার জন্য অনুরোধ করেছি কিন্তু তারপরেও ওনি কাজ চালিয়ে গেছেন।  তাই আজ এই দূর্ঘটনা ঘটেছে আমরা তদন্ত করে ব্যাবস্থা নিবো। 

স্থানীয়রা জানান, রোববার সকালে শ্রমিক মনির কাজ করার সময় ভবনের সাথে লাগোয়া বিদ্যুতের সংযোগ লাইনের সাথে তার শরীর লেগে গেলে ঘটনাস্থলে তার পিঠ এবং পায়ের একাংশ পুঁড়ে যায় এবং তিনি ভবন থেকে ছিটকে নিচে বালির স্তুপে পরে আহত হন।   পত্যক্ষদর্শী এক যুবক জানায় হঠাৎ বিকট শব্দ শুনে তাকিয়ে দেখি মনির উপড় থেকে নিচে পড়ে চিৎকার করছে।  বালিতে না পরে যদি রাস্তায় পরতো তাহলে সাথে সাথে মারা যেতো।  

স্থানীয়রা এসময় তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করায়।  এরপর তার অবস্থা অবনতি হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।  ভবনটি রাস্তা ঘেষে নির্মান  করার  সময় অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন।  এবং পৌরসভার বিল্ডিং কোর্ট সঠিকভাবে মানা হয়নি বলেও অভিযোগ করেন। 

এব্যাপারে বাঘাইছড়ি পৌরসভার মেয়র জাফর আলী খানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বিল্ডিং কোর্ডের বিষয়টি আমার জানা নেই  বলে পৌরসভার কার্যসহকারী আশিকুর রহমান মানিকের সাথে যোগাযোগের পরামর্শ দেন।   পরে কার্যসহকারী আশিকুর রহমান মানিক বলেন ভবনটি পৌরসভার বিল্ডিং কোর্ড সঠিকভাবে মেনে করা হয়নি ।  ভবন নির্মান  করার সময় বৈদ্যুতিক খুঁটি এবং রাস্তা থেকে যতখানি দুরত্বে থাকার কথা মানা হয়নি। 

ভবন নির্মানে স্থানিয়রা রাস্তা থেকে একটু দুরত্বে নির্মানের পরামর্শ দিলেও ভবন মালিক কারো কথা তোয়াক্কা নাকরে ভবনটি নির্মান করে। দ্বিতলার কাজে বৈদ্যতিক জুলন্ত তারের ঝুঁকি রয়েছে বলে আবাসিক প্রকৌশলি বাধা দেওয়ার পরেও ভবন মালিক নির্মান কাজ চালিয়ে যায়। 

বাঘাইছড়িতে এমন অনিয়মে অনেক ভবন রাস্তার পাশ ঘেঁষে অপরিকপ্লিত ভাবে নির্মান করা হয়েছে।  যার ফলে জনভূগান্তিতে রয়েছে স্থানিয় জনগন।  অপরিকল্পিত ভবন মার্কেটের এখনি কোন ব্যাবস্থা না নিলে যে কোন সময় বড় কোন দূর্গটনা ঘটতে পারে বলে মনে করেন সচেতন মহল।  ভবন মালিক আবুল মাছুমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জায়গা সংকটের কথা উল্লেখ করে বলেন পাশে যায়গা কম থাকায় সঠিকভাবে নিয়ম মানা সম্ভব হয়নি বলে  শিকার করেন।  

বাঘাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নির্মান  শ্রমিক মনিরকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতালে  প্রেরণ করা হয়েছে।  এখানে বার্ণ ইউনিট না থাকায় আহত  রোগীর চিকিৎসা বাঘাইছড়িতে  সম্ভব নয় বলে যানান চিকিৎসক।  


keya