২:৪৯ এএম, ১৬ জুলাই ২০১৯, মঙ্গলবার | | ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪০




ফেসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেওয়ায়

ভান্ডারিয়ায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যার চেষ্টা

১৫ মে ২০১৯, ০৯:০৬ পিএম | জাহিদ


মো.দেলোয়ার হোসাইন, পিরোজপুর : ফেসবুকে অশ্লীল ছবি ছড়িয়ে দেয়ার অপমান সইতে না পেরে কিটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালিয়েছে পিরোজপুরের ভান্ডারিয়া উপজেলার মোসলেম মাটিভাংগা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির এক ছাত্রী। 

এ ঘটনায় মেয়েটির মা বাদি হয়ে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ এনে বখাটে তানভীর ও কাইউম পঞ্চাইতসহ চার জনের বিরুদ্ধে ভান্ডারিয়া থানায় লিখিত অভিযোগ  করেছে।  মেয়েটির মায়ের অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মাটিভাংগা গ্রামের আলমগীর পঞ্চাইতের বখাটে ছেলে তানভীর পঞ্চাইত ৫-৬ মাস ধরে তার মেয়েকে স্কুলে আসা-যাওয়ার পথে উত্যাক্ত করত এবং কু প্রস্তাব দিত।  মেয়েটি  রাজি না হওয়ায় তানভীর তার মেয়েকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। 

মেয়েটির বাবা-মা এ ব্যপারে  তানবীরের বাবা  মায়ের কাছে নালিশ করলে এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তানভীর এবং তার সহযোগিরা সোমবার অন্য একটি নগ্ন ছবির সঙ্গে তার মেয়ের ছবি জুড়ে দিয়ে (এডিট করে) ফেসবুকে প্রকাশ করে।  এ অপমান সইতে না পেরে মেয়েটি সোমবার রাতে নিজ ঘরে পোকামাকড় নিধনের কীটনাশক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়।  মেয়েটির স্বজনরা তাৎক্ষনিকভাবে তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে প্রাণে বেঁচে যায় সে।  মেয়েটি বর্তমানে ভান্ডারিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। 

ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহাবুদ্দিন জানান, এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। 


keya