৮:১৩ পিএম, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার | | ২২ রমজান ১৪৪০




নাজিরপুরে চাঁদাবাজীর অভিযোগে মুক্তিযোদ্ধা গ্রেফতার

১৬ মে ২০১৯, ০৮:৪৬ পিএম | জাহিদ


মো.দেলোয়ার হোসাইন, পিরোজপুর : পিরোজপুরের নাজিরপুরে চাঁদাবাজীর অভিযোগে এক মুক্তিযোদ্ধাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  গ্রেফতারকৃত ওই মুক্তিযোদ্ধার নাম নিত্যানন্দ হাওলদার (৬৫)।  

বৃহস্পতিবার বিকেল পৌনে ৪টার দিকে থানা পুলিশ তাকে উপজেলার শ্রীরামকাঠী বন্দর থেকে গ্রেফতার করেছে।  নাজিরপুর থানার ওসি মোঃ যাকারিয়া বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  নিত্যানন্দ উপজেলার শ্রীরামকাঠী গ্রামের মৃত সুরেন্দ্র নাথ হালদারের ছেলে।  তিনি যে চাঁদা দাবি করেছেন সে অডিও ভাইরাল হলে এলাকায় তোলপাড়  সৃষ্টি হয়।  

ওসি জানিয়েছেন  ভুক্তভোগী নির্মল চন্দ্র বড়াল বাদি হয়ে গ্রেফতারকৃত নিত্যানন্দ হালদার সহ দু’জনের নাম উল্লেখসহ ৮ থেকে ১০ জনকে আসামি করে ১৬ মে বৃহস্পতিবার দুপুরে  থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। 

থানা পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বানিয়াকাঠী গ্রামে মৃত যজ্ঞেশ্বর বড়ালের ছেলে পিরোজপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অবসর প্রাপ্ত অফিস সহকারি কাম-কম্পিউটার অপারেটর নির্মল চন্দ্র বড়ালসহ ৪ জনে উপজেলার শ্রীরামকাঠী ইউনিয়নের ৬৩ নং ভীমকাঠী মৌজার এস.এ খং নং- ১৫১, দাগ নং- ৮১১ এর ১৬ শতক  জমি  এর  মালিক প্রফুল্ল কুমার রায়ের নিকট থেকে ক্রয় করেন।  পরে তারা ওই সম্পত্তিতে আলাদা ভাবে পাকা ভবন নির্মাণ কাজ শুরু  করলে মুক্তিযোদ্ধা নিত্যানন্দ মোবাইলফোনে এবং সরাসরি ওই জায়গায় নির্মাণ কাজ করতে হলে তাকে ৭ লাখ টাকা চাঁদা দিতে হবে বলে তাদেরকে নানা ভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি দিতে থাকেন। 

এ সময় তারা মোবাইলফোনে চাঁদা দাবির বিষয়টি অডিও রেকর্ড করে রাখেন।  এক পর্যায়ে ওই টাকার অংক কমিয়ে   দেড় লাখ টাকা দাবি করেন।  তার দাবিকৃত টাকা না দেয়ায় গত ১৮ এপ্রিল বিকেলে নিত্যানন্দ হালদার ও তার সহযোগী হিমাংশু কুমার বৈরাগী তাদের  ৭/৮ জন লোক নিয়ে ওই নির্মাণাধীন বাড়িতে এসে পুনরায় তার দাবিকৃত দেড়লাখ টাকা দাবি করেন।  তারা ওই টাকা দিতে অস্বীকার করলে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয় এবং সেখানে থাকা নির্মাণ সামগ্রীর   ৬০ বস্তা সিমেন্ট ও প্রায় এক টন রড লুট করে নিয়ে যান।  পরে ওই অডিও রেকর্ড গুলো ভাইরাল হলে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়। 

অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে অভিযুক্ত নিত্যানন্দ হালদার  চাঁদাদাবির ঘটনা অস্বীকার করে বলেন, ওই সম্পত্তির মধ্যে হিমাংশু কুমার বৈরাগীর সম্পত্তি রয়েছে।  সে বিষয়টি ফয়সালার জন্য তারা আমার কাছে আসলে তাদের সাথে হিমাংশুর সম্পত্তি নিয়ে কথা হয়েছে।  অডিওর ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি প্রসঙ্গ এড়িয়ে যান। 

এ ব্যাপারে ওই ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি ও উপজেলা ডেপুটি মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার  আলহাজ মো. আলতাফ হোসেন বেপারী জানান, তিনি নৈতিকতার দিক থেকে খারাপ হওয়ায় আমরা আ’লীগের সংগঠনের দিক থেকে এবং  মুক্তিযোদ্ধারা তাকে এড়িয়ে চলি।