৭:২৫ এএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার | | ২০ মুহররম ১৪৪১




বান্দরবানে সন্ত্রাসীদের গুলিতে আ’লীগ নেতা নিহত

১৯ মে ২০১৯, ০৫:১৪ পিএম | জাহিদ


রিমন পালিত, বান্দরবান : বান্দরবানে সন্ত্রীদের গুলিতে এক আ’লীগ নেতা নিহত হয়েছে ।  বান্দরবানের রাজবিলা ইউনিয়নের ৪ নং রাবার বাগান এলাকায় শনিবার রাত ২ টার দিকে এই ঘটনা ঘটে। 

নিহত ব্যাক্তির নাম ক্য চিং থোয়াই মারমা (২৭)।  তার পিতা তাউ থোয়াই মারমা (৫৭)  বান্দরবানের রাজবিলা আওয়ামী লীগের এক সমর্থককে অপহরণের পর গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা।  ওই সমর্থকের নাম ক্য চিং থোয়াই মারমা (২৭)। 

এলাকাবাসী জানান নিহত ক্য চিং কে গভীর রাতে ঘর থেকে তুলে নিয়ে যায় তার পর তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়।  সে আওমালীগ সমর্থন করে বলে তাকে হত্যা করে বলে জানাই এলাকাবাসী।  তার বুকে ও পিঠে  গুলির দাগ রয়েছে।  

এলাকাবাসী আরো জানাই সন্ত্রাসীরা কিছু দিন আগে একই এলাকার জয়মনি তংতঙ্গাকে গুলি করে হত্যা করে, একটা সন্ত্রাসী গ্রুপ কিছু দিন ধরে এই হত্যা কান্ড চালিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ এলাকাবাসীর।  

এই ঘটানায় রাজভিলা ইউনিয়নের ৪ নং রাভার বাগান এলাকার পাড়া বাসীর মধ্য ভয়ভিতি তৈরি হয়েছে।  আর এই সব হত্যাকান্ডে জে এস এস (জনসংহতি) সমিতির হাত রয়েছে বলে অভিযোগ আওয়ালীগ নেতৃবৃন্দদের।   

শনিবার রাত ২ টার দিকে এক দল সন্ত্রাসী ক্য চিংকে ঘর থেকে তুলে নিয়ে যায়, তখন এলাকায় চিৎকার চেচামেছি শুরু হলে  ১ কিলোমিটার দুরে ৫ নং রাভার বাগান এলাকায় তার লাশ খুজে পায়।  

বান্দরবান সদড় থানার দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকতা মো: জিয়া উদ্দিন জানান, লাশ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেওয়া হলে রাজভিলা পুলিশ ক্যাম্প ও বান্দরবান সদড় থানা থেকে পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে সত্যতা যাচাইয়ের চেষ্টা করেছেন  খুব দ্রুত এর তদ্ধন্ত সম্পন্ন হবে বলে জানান।  

এই বিষয়ে রাজভিলা ইউনিয়নের চেয়াম্যান কে অং প্রু মারমা জানান, মুল ঘটনা হয়েছে রাজনীতিকে কেন্দ্র করে তার পরিবার আওয়ামীলীগকে সমর্থন করে এবং তার ভাই ওয়াড আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি  নিহত ক্য চিং  থোয়াই আওয়ামীলীগ করার কারনে এলাকা একদল সন্ত্রাসী বাহিনী তার উপর খোপ প্রকাশ করে কেন পাহাড়ী হয়ে এই দল সর্মথন করবে, আর তার রেষ ধরে ভোর রাতে তাকে বাসা থেকে তুলে নিয়ে গুলি করা হয়। 

এলাকাবাসীরা বর্তমানে প্রশাসনের সার্বিক সহযোগীতা কামনা করেন যাতে পরবর্তীতে এই ধরনের ঘটনা আর না হয় সে জন্য কঠোর আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়ার আহব্বান এলাকাবাসীর।