৪:৪৪ পিএম, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, রোববার | | ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




কুড়িগ্রামে দুদক’র দুর্নীতি মামলায় নাগেশ্বরী’র পৌর মেয়র গ্রেফতার

২২ মে ২০১৯, ০১:৫২ পিএম | জাহিদ


হুমায়ুন কবির সূর্য্য, কুড়িগ্রাম : কুড়িগ্রামে দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়েরকৃত মামলায় নাগেশ্বরী পৌরসভার মেয়র আব্দুর রহমান মিয়াকে ১৫ লক্ষ ৯৪ হাজার টাকা আত্মসাতের মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। 

বুধবার দুপুরে বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ (ভারপ্রাপ্ত) আশিখুল কবির’র আদালতে পৌরমেয়র জামিনের আবেদন করলে বিজ্ঞ বিচারক জামিন না-মঞ্জুর করে তাকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ প্রদান করেন।  এর আগে হাইকোর্ট থেকে তিনি ৪ সপ্তাহের জামিন শেষে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পন করলে তাকে জেল হাজতে নেয়ার আদেশ দেয়া হয়। 

দুদক’র আইনজীবী অ্যাডভোকেট এসএম আব্রাহাম লিংকন জানান, গত ১৪ মার্চ রংপুর দুর্নীতি দমন কমিশনের উপ সহকারি পচিালক নুর আলম ধারা-৪০৯ পেনাল কোড এবং দুর্নীতি প্রতিরোধ আইন ১৯৪৭ সনের ৫(২) ধারায় ক্ষমতার অপব্যবহার পূর্বক নাগেশ্বরী হাসপাতালের পৌরকর বাবদ ১৫ লক্ষ ৯৪ হাজার টাকা সাময়িক আত্মসাতের অপরাধে নাগেশ্বরী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। 

অভিযোগে উল্লেখ করা হয় নাগেশ্বরী পৌরমেয়র ২০১৩-১৪ ও ১৫ অর্থবছরে তিন দফায় নাগেশ্বরী হাসপাতাল থেকে প্রদানকৃত পৌরকর নাগেশ্বরী পৌরসভার হিসাব নম্বরে জমা প্রদান করেননি।  পরবর্তীতে দুদকে অভিযোগের পর ১২/৪/১৮ সালে নাগেশ্বরী পৌরসভা শিরোনামে সোনালী ব্যাংক শাখায় ১৫ লক্ষ ৯৪ হাজার টাকা জমা প্রদান করেন।  অনুসন্ধানে কমিশনের আইন অনুবিভাগের মতামত অনুযায়ী আত্মসাৎকৃত টাকা পরবর্তীতে ফেরৎ প্রদান করলেই অপরাধের দায় থেকে মুক্তি পাওয়া যায়না মর্মে প্রতিয়মান হওয়ায় নাগেশ্বরী পৌরমেয়রের বিরুদ্ধে সাময়িক আত্মসাতের দায়ে মামলা দায়ের করা হয়।  এর আগে তিনি উচ্চ আদালত থেকে ৪ সপ্তহের আগাম জামিন প্রাপ্ত হন। 

কিন্তু হাইকোর্ট থেকে তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পন করতে বলা হয় এবং নিম্ন আদালতকে মামলার মেধা অনুসারে সিদ্ধানের কথা বললে বুধবার দুপুরে বিজ্ঞ জেলা ও দায়রা জজ (ভারপ্রাপ্ত) আশিখুল কবির অর্থ আত্মসাতের মামলায় পৌরমেয়র আব্দুর রহমান মিয়াকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। 

দুদক’র পক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট এস.এম আব্রাহাম লিংকন এবং আসামী পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট ফকরুল ইসলাম।