৫:৫৮ এএম, ২৩ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার | | ২৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪১




নিহত চথোয়াই মং এর স্মরণে বান্দরবানে আ’লীগের শোকসভা অনুষ্ঠিত

২৭ মে ২০১৯, ০৫:৩৯ পিএম | জাহিদ


রিমন পালিত, বান্দরবান : বান্দরবানে আওয়ামীলীগের নেতা নিহত চথোয়াই মং মার্মার স্মরণে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।  সোমবার বিকালে জেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে এ শোকসভা অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ক্য শৈ হ্লা।  অন্যান্যদের মধ্যে  আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য শফিকুর রহমান, সহসভাপতি ও সদর উপজেলার চেয়ারম্যান একেএম জাহাঙ্গীর, সাধারন সম্পাদক ও বান্দরবান পৌরসভার মেয়র মোঃ ইসলাম বেবী, জেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অজিত কান্তি দাশ, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি অমল কান্তি দাশ, জেলা পরিষদ সদস্য থিং থিং ম্যাসহ পৌর ও জেলার দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। 

শোকসভায় বক্তারা বলেন যারা চথোয়াই মং কে নৃশংস ভাবে হত্যা করেছে তাদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তি দিতে হবে এবং পাহাড়ে যারা সন্ত্রাসী চাঁদাবাজীর সাথে জড়িত তাদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানান।  এদিকে এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে জেএসএস এর ১৩ নেতা ও অজ্ঞাত ১৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।  ইতোমধ্যে পুলিশ চথোয়াই মং হত্যা মামলায় ৪ জন এবং ক্যচিংথোয়াই হত্যা মামলা ৩  জনকে গ্রেফতার করে।  

উল্লেখ্য, বুধবার (২২ মে) রাত ৯টার দিকে সদর উপজেলার চড়–ই পাড়ার উজি হেডম্যান পাড়ায় নিজ খামার বাড়ী থেকে ফেরার পথে তাকে অপহরন করে নিয়ে যায় কিছু অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা।  তিনদিন পর ঐ এলাকা থেকে প্রায় ৩ কি:মি: দূরে তার লাশ পাওয়া যায়।  এর প্রতিবাদে ঐ দিন রাতে শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করে আওয়ামীলীগ।  এদিকে ঘটনার পর থেকে ঐ এলাকায় পুলিশ ও সেনাবাহিনীর যৌথ অভিযান অব্যাহত রয়েছে। 

এ পর্যন্ত গত ১৫ দিনে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে জেএসএস এর ২ জনকে হত্যা ও ১ জনকে অপহরন অন্যদিকে আওয়ামীলীগের ১ জনকে হত্যা ও ১ জনকে অপহরনের পর হত্যা করা হয়েছে।  এনিয়ে আতঙ্কে দিন কাটছে পাহাড়ের মানুষের।  অনেকে ঘরবাড়ী ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। 


keya