৬:৩০ পিএম, ২৭ জুন ২০১৯, বৃহস্পতিবার | | ২৩ শাওয়াল ১৪৪০




মোংলার দক্ষিণ কাইনমারীর খ্রীষ্টান সম্প্রদায় টুটুল বাহিনীর হাতে জিম্মি

২৮ মে ২০১৯, ০৯:৪২ পিএম | জাহিদ


এম.পলাশ শরীফ, বাগেরহাট : গুম-হত্যা, ধর্ষণ, চাঁদাবাজীসহ পাহাড় সমান অভিযোগ নিয়ে মোংলার দক্ষিণ কাইনমারী গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোস্ত শেখের পুত্র ভূয়া সাংবাদিক মাসুদুর রহমান টুটুলের বিরুদ্ধে এলাকার প্রায় অর্ধশত সংখ্যালঘু খ্রীষ্টান সম্প্রদায়ের লোকজন মোংলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। 

মঙ্গলবার বিকেলে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।  গ্রামবাসীর পক্ষে  সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন আভা মেরী নাথ।  

তিনি লিখিত বক্তব্যে বলেন, মোংলার দক্ষিণ কাইনমারী গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা সুন্দর নাথসহ কতিপয় সংখ্যালঘু খ্রীষ্টান সম্প্রদায়ের পরিবার জিম্মি হয়ে পড়েছে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোস্ত শেখের পুত্র শেখ মাসুদুর রহমান টুটুলসহ তার সহযোগীদের হাতে।  টুটুল নিজেকে কথিত সাংবাদিক ও র‌্যাবের সোর্স পরিচয় দিয়ে তার সহযোগীদের মাধ্যমে গ্রামের নিরীহ ব্যক্তিদের ঘের ভেড়ি জবর দখল, জোর পূর্বক চাঁদা আদায়, নারীদের শ্লীলতাহানীসহ নানা ধরণের সন্ত্রাসী কার্যকলাপ চালিয়ে আসছে।  কেউ এসবের প্রতিবাদ করলেই তাকে তার ক্যাডার বাহিনী ও পুলিশ প্রশাসন দিয়ে নানা কৌশলে দমিয়ে রাখছে। 

টুটুলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ, চাঁদাবাজী, মারামারী, নারীদের শ্লীলতাহানী, ঘের দখলসহ মোংলা থানায় বেশ কয়েকটি মামলা ও সাধারণ ডায়েরী রয়েছে।  প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় টুটুল তার নামে দায়ের হওয়া কিছু মামলা নিস্পত্তি করালেও এখনও তার নামে একাধিক মামলা চলছে। 

এছাড়া তার বিরুদ্ধে বনদস্যু রাজু বাহিনীর হয়ে চাঁদা আদায়, মামলা দিয়ে এলাকার নিরিহ মানুষদের হয়রানীর অভিযোগ রয়েছে।  তার এ অপকর্ম করতে সহযোগীতা করেন একই এলাকার  উত্তম মন্ডল ও সঞ্জয় মন্ডলসহ চিহ্নিত কিছু ব্যক্তি।  অপ্রতিরোধ্য এই টুটুল ও তাদের গংদের হাত থেকে রক্ষা পেতে মোংলার দক্ষিণ কাইনমারী গ্রামের মানুষ প্রশাসন ও সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।  

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত টুটুলের মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা যায়নি। 


keya